Friday, May 24, 2024
spot_img
spot_img
Homeরাজ্যলিড না পেলে থাকবে না চেয়ার, হুঁশিয়ারি বিপ্লব মিত্রের

লিড না পেলে থাকবে না চেয়ার, হুঁশিয়ারি বিপ্লব মিত্রের

জিততে এ বার নরমে-গরমে অবস্থান নিলেন বালুরঘাট লোকসভা কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী বর্ষীয়ান তৃণমূল নেতা বিপ্লব মিত্র।বালুরঘাটের অন্তর্গত বংশীহারির সুকান্ত ভবনে শনিবার ছিল বিপ্লবের কর্মিসভা। সেই সভায় দাঁড়িয়েই তিনি বলেন, ‘‘শুনে রাখুন, আমাদের মূল সেনাপতি এখন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়, তিনি বলে গিয়েছেন।

লিড না পেলে থাকবে না চেয়ার, হুঁশিয়ারি বিপ্লব মিত্রের

আর মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও আমাকে বলে দিলেন, যে প্রধানের এলাকায় ভোট কম হবে, তার পরের দিন সেখানকার প্রধানকে পদত্যাগ করে সরে যেতে হবে। যে পঞ্চায়েত সমিতিতে আমরা কম ভোট পাব, সেই সমিতির সভাপতিকে পরের দিন পদত্যাগ করতে হবে। আর যদি পদত্যাগ না করেন, তাহলে সরকারি ক্ষমতা প্রয়োগ করে তাঁকে সরিয়ে দেওয়া হবে। এটাই পার্টির সিদ্ধান্ত।’’বিপ্লবের আরও দাবি, বিজেপি বালুরঘাট আসনটি জিততে কোটি কোটি টাকা খরচ করছে।

লিড না পেলে থাকবে না চেয়ার, হুঁশিয়ারি বিপ্লব মিত্রের

তৃণমূলের কর্মীদের টাকা দিয়ে কিনে নেওয়া হচ্ছে বলেও প্রশাসন এবং কর্মীদের কাছ থেকে খবর পাচ্ছেন বলেও দাবি করেছেন। বিপ্লব বলেন, ‘‘আপনারা জানেন, ওরা কত টাকা খরচ করছে? আমি এখানে না দাঁড়ালে ওরা ওয়াকওভার পেত। আমাকে হারানোর জন্য ওদের প্রচুর কৌশল নিতে হচ্ছে, জলের মতো টাকা খরচ করতে হচ্ছে।

লিড না পেলে থাকবে না চেয়ার, হুঁশিয়ারি বিপ্লব মিত্রের

যেটা দেখা যাচ্ছে যে, যেখানে ১ কোটি টাকা খরচ করলেই হত, সেখানে ৩৫ কোটি-৩৭ কোটি টাকা খরচ করতে হচ্ছে ওদের। আমাদের কিছু নেতা, কর্মী বিক্রি হয়ে যাচ্ছেন। প্রশাসনের কাছ থেকে, দলের কর্মীদের কাছ থেকে সব খবর পাচ্ছি। কত টাকায় তাঁরা নিজেদের বিক্রি করলেন বিজেপির কাছে, আমাদের কাছে সমস্ত খবরই আছে। আমি আপনাদের বলি, এই সিটে আমাকে হারানোর ক্ষমতা বিজেপির নেই।’’

লিড না পেলে থাকবে না চেয়ার, হুঁশিয়ারি বিপ্লব মিত্রের

প্রত্যাশিত ভাবেই বিপ্লবের মন্তব্যের সমালোচনা এসেছে বিজেপির তরফ থেকে। ওই কেন্দ্রেরই প্রার্থী সুকান্ত মজুমদার শনিবার গঙ্গারামপুরের একটি সভায় বলেন, ‘‘ভয় দেখিয়ে ভোটে জিততে চাইছেন বিপ্লব মিত্র। কাউকে লক্ষ্মীর ভান্ডার বন্ধ করে দেওয়ার ভয় দেখাচ্ছেন, কাউকে পথ থেকে সরিয়ে দেওয়ার ভয় দেখাচ্ছেন।

লিড না পেলে থাকবে না চেয়ার, হুঁশিয়ারি বিপ্লব মিত্রের

আমি সুকান্ত মজুমদার, আপনাদের আশ্বস্ত করছি, আইন অনুযায়ী কোনও নির্বাচিত প্রতিনিধিকে তিন বছরের আগে পদ থেকে সরানো যায় না। তিনি ভয় তৈরি করতেই এই ধরনের মন্তব্য করছেন। কারণ তিনি বুঝে গিয়েছেন, এখন আর তাঁকে কেউ মানে না।’’

Most Popular

error: Content is protected !!