Friday, July 19, 2024
spot_img
spot_img
Homeরাজ্যইডির বাজেয়াপ্ত ৩৫০০ কোটি টাকা বাংলার মানুষকে ফিরিয়ে দেওয়ার আশ্বাস মোদীর

ইডির বাজেয়াপ্ত ৩৫০০ কোটি টাকা বাংলার মানুষকে ফিরিয়ে দেওয়ার আশ্বাস মোদীর

স্টাফ রিপোর্টার: বাংলায় একাধিক দুর্নীতি কাণ্ডে যে অর্থ উদ্ধার করছে ইডি, তা সাধারণ মানুষের মধ্যেবিলিয়ে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।বিজেপি সূত্রে খবর, কৃষ্ণনগরের বিজেপি প্রার্থী অমৃতা রায়কে ব্যক্তিগতভাবে ফোন করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

ইডির বাজেয়াপ্ত ৩৫০০ কোটি টাকা বাংলার মানুষকে ফিরিয়ে দেওয়ার আশ্বাস মোদীর

তখনই দুর্নীতির বিষয়টি অমৃতাই তুলে ধরেন প্রধানমন্ত্রীর কাছে।উত্তরে প্রধানমন্ত্রী জানান, ‘অমৃতাজি আমি আপনাকে একটা কথা বলি। আমি আইনি পরামর্শ নিচ্ছি। বাংলায় ইডির লোকেরা প্রায় ৩ হাজার কোটি টাকা বাজেয়াপ্ত করেছে। এই টাকা গরিব মানুষের টাকা।

ইডির বাজেয়াপ্ত ৩৫০০ কোটি টাকা বাংলার মানুষকে ফিরিয়ে দেওয়ার আশ্বাস মোদীর

নতুন সরকার তৈরি হওয়ার পর একটা আইনি ব্যবস্থা হবে, যাতে গরিব মানুষের থেকে লুঠ করা টাকা ফেরানো যায়।’ গেরুয়া শিবির সূত্রে খবর, টাকা ফেরানোর বিষয়টিকে প্রচার-অস্ত্র করতেও পরামর্শ দেন প্রধানমন্ত্রী। এর পর বিজেপি প্রার্থীকে শুভেচ্ছা জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আপনি জিতে আসুন। দেখা হবে।

ইডির বাজেয়াপ্ত ৩৫০০ কোটি টাকা বাংলার মানুষকে ফিরিয়ে দেওয়ার আশ্বাস মোদীর

জেতার পর প্রথম ১০০ দিনের মধ্যে কৃষ্ণনগরে কী করতে হবে, সেটা তৈরি করে রাখুন। আমরা সাহায্য করব। যে কাজ ভারত সরকারকে করতে হবে, তা দ্রুত শেষ করার জন্য চেষ্টা করব।’ রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা মনে করছেন, মঙ্গলবার প্রধানমন্ত্রী ফোন করেছিলেন বসিরহাটের বিজেপি প্রার্থী তথা সন্দেশখালীর প্রতিবাদী মহিলাদের মুখ রেখা পাত্রকে।

ইডির বাজেয়াপ্ত ৩৫০০ কোটি টাকা বাংলার মানুষকে ফিরিয়ে দেওয়ার আশ্বাস মোদীর

এদিন ফোন করলেন কৃষ্ণনগরের প্রার্থী অমৃত রায়কে। দুটি জায়গার সঙ্গেই দুর্নীতির অভিযোগ জড়িয়ে রয়েছে। সন্দেশখালীতে তো তৃণমূল নেতা শাহজাহান শেখের বিরুদ্ধে দুর্নীতির একাধিক অভিযোগ রয়েছে। সন্দেশখালীর ঘটনার সূত্রপাতই হয়েছিল, রেশন দুর্নীতির তদন্তে শাহজাহানের বাড়িতে ইডির হানা দেওয়াকে কেন্দ্র করে।

ইডির বাজেয়াপ্ত ৩৫০০ কোটি টাকা বাংলার মানুষকে ফিরিয়ে দেওয়ার আশ্বাস মোদীর

অন্যদিকে, কৃষ্ণনগরের তৃণমূল প্রার্থী মহুয়া মৈত্র। তাঁর বিরুদ্ধেও ঘুষের বিনিময়ে সংসদে প্রশ্ন করার অভিযোগ উঠেছিল। লোকসভার এথিক্স কমিটির সুপারিশ মেনে মহুয়া মৈত্রর সাংসদ পদ খারিজ করা হয়েছিল।রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের মতে, খোদ প্রধানমন্ত্রী বাংলার মানুষকে সেই দুর্নীতির অর্থ ফিরিয়ে দেওয়ার অঙ্গীকার করছেন, বাংলার রাজনৈতিক প্রেক্ষাপটে এটা অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ।

ইডির বাজেয়াপ্ত ৩৫০০ কোটি টাকা বাংলার মানুষকে ফিরিয়ে দেওয়ার আশ্বাস মোদীর

যদিও প্রধানমন্ত্রীর এই মন্তব্যে কটাক্ষ করেছে বিরোধীরা। বিরোধীদের কটাক্ষ, এক দশক আগে সুইস ব্যাঙ্কের কালো টাকা দেশে ফেরানো হবে এবং তা দরিদ্র নাগিরকদের মধ্যে বিলি হবে বলে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন মোদি। আজ অবধি সেই টাকার হদিশ মেলেনি। উলটে নোটবন্দির পর লাগামছাড়া দুর্নীতির তদন্তে ব্যস্ত ইডির মতো কেন্দ্রীয় সংস্থা।

ইডির বাজেয়াপ্ত ৩৫০০ কোটি টাকা বাংলার মানুষকে ফিরিয়ে দেওয়ার আশ্বাস মোদীর

পাশাপাশি মূল্যবৃ্দ্ধির বাজারে সাধারণ মানুষের জীবন ওষ্ঠাগত। ভোটের আগে এরকম ভাঁওতা দেওয়া তাঁর অভ্যাস। টাকার কী হবে তা ঠিক করবে আদালত। এব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়ার ক্ষমতা প্রধানমন্ত্রীর নেই।

Html code here! Replace this with any non empty raw html code and that's it.

Most Popular

error: Content is protected !!