Friday, June 14, 2024
spot_img
spot_img
Homeজেলাদেওয়া হল না উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা, কঠিন ব্যাধিতে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালের শয্যায়...

দেওয়া হল না উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা, কঠিন ব্যাধিতে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালের শয্যায় শুয়ে স্বপ্ন দেখে কাকদ্বীপের উদয়

বিশ্ব সমাচার, কাকদ্বীপ : মাধ্যমিক পাস করার পর, হোটেল ম্যানেজমেন্ট নিয়ে পড়াশোনার স্বপ্ন দেখতো রাজনগর শ্রীনাথগ্রাম বাণী বিদ্যাপীঠের দ্বাদশ শ্রেণীর ছাত্র উদয় শঙ্কর পাহাড়ী। সেই মতো পড়াশোনার প্রস্তুতিও নিচ্ছিল। উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার এ্যাডমিট কার্ডও হাতে পেয়ে গিয়েছিল। আর কয়েক দিনের অপেক্ষা, এরপরই উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষায় বসার কথা ছিল উদয়ের।

দেওয়া হল না উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা, কঠিন ব্যাধিতে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালের শয্যায় শুয়ে স্বপ্ন দেখে কাকদ্বীপের উদয়

কিন্তু তা আর হলো না। এখন উদয় কলকাতার মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের শয্যায় শুয়ে জীবনের সঙ্গে লড়াই করে চলেছে।
স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, কাকদ্বীপ থানার রাজনগর শ্রীনাথ গ্রামের বাসিন্দা উদয়ের বাবা কমলেন্দু পেশায় একজন দিনমজুর। অভাবের সংসারে এক কাঠাও জমি নেই।

দেওয়া হল না উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা, কঠিন ব্যাধিতে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালের শয্যায় শুয়ে স্বপ্ন দেখে কাকদ্বীপের উদয়

দিন আনা দিন খাওয়া পরিবারে দুই ছেলেকে পড়াশোনা করানোর জন্য আজও লড়াই করে চলেছেন। ছোট ছেলে উদয়ের ছোটবেলা থেকেই পড়াশোনার প্রতি আগ্রহ ছিল প্রবল। ছেলেকে পড়াশোনা করানোর জন্য তিনি দিনরাত এক করে পরিশ্রম করেছেন। কিন্তু হঠাৎ করে যেন তাঁদের সব স্বপ্ন থমকে গিয়েছে। ডিসেম্বর মাসের শেষের দিকে হঠাৎই অসুস্থ হয়ে পড়ে উদয়।

দেওয়া হল না উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা, কঠিন ব্যাধিতে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালের শয্যায় শুয়ে স্বপ্ন দেখে কাকদ্বীপের উদয়

চিকিৎসকেরা জানিয়েছিলেন, এ্যাপেনডিক্সের অপারেশন করালে ঠিক হয়ে যাবে। সেই মতো অপারেশনও করা হয়েছিল। কিন্তু দশ দিন পর উদয় আবারও বুকের ব্যথা অনুভব করে। এরপর তার রক্তের রিপোর্ট করালে জানা যায়, সে ব্লাড ক্যান্সারে আক্রান্ত। বর্তমান হাসপাতালের শয্যায় শুয়ে জীবনের সঙ্গে লড়াই করে চলেছে উদয়।

দেওয়া হল না উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা, কঠিন ব্যাধিতে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালের শয্যায় শুয়ে স্বপ্ন দেখে কাকদ্বীপের উদয়

উদয়ের বাবা কমলেন্দু পাহাড়ী বলেন, ২০২৪ সালে ছেলের উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা দেওয়ার কথা ছিল। কিন্তু কঠিন ব্যাধিতে আক্রান্ত হওয়ায় এবছর পরীক্ষা দেওয়া হল না। অভাবের সংসারে জানিনা কিভাবে ছেলেকে সুস্থ করব। প্রচুর টাকা ধারদেনা হয়ে গিয়েছে। ছেলের পাশে দাঁড়ানোর জন্য মুখ্যমন্ত্রীর কাছে আবেদন জানিয়েছি।

দেওয়া হল না উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা, কঠিন ব্যাধিতে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালের শয্যায় শুয়ে স্বপ্ন দেখে কাকদ্বীপের উদয়

উদয়ের বিদ্যালয়ের শিক্ষক সৌম্য কান্তি জানা বলেন, “উদয় খুব ভালো ছাত্র। পড়াশুনার প্রতি ওঁর জেদ রয়েছে। বিদ্যালয়ের সকল শিক্ষক উদয়ের পাশে রয়েছে।” এদিকে হাসপাতালের শয্যায় শুয়ে উদয়ের কাতর আকুতি, “আমি সুস্থ হয়ে পড়াশুনা করতে চাই”।

Html code here! Replace this with any non empty raw html code and that's it.

Most Popular

error: Content is protected !!