Friday, July 19, 2024
spot_img
spot_img
Homeজেলাপাঁচটি কাব্যগ্রন্থ একই দিনে প্রকাশ করে ইন্ডিয়া বুক অফ রেকর্ডসে নাম...

পাঁচটি কাব্যগ্রন্থ একই দিনে প্রকাশ করে ইন্ডিয়া বুক অফ রেকর্ডসে নাম তুললেন নামখানার ছাত্র

রবীন্দ্রনাথ মন্ডল, নামখানা: বাংলা ভাষাকে শ্রদ্ধা জানিয়ে একদিনে একসঙ্গে পাঁচটি ভিন্ন ঘরানার কাব্যগ্রন্থ প্রকাশ করে ইন্ডিয়া বুক অফ রেকর্ডসে জায়গা করে নিলেন নামখানার ছাত্র ধ্রুববিকাশ মাইতি। ধ্রুববিকাশ পশ্চিমবঙ্গের দক্ষিণ ২৪ পরগনার নামখানার দেবনগর গ্রামের বাসিন্দা।

পাঁচটি কাব্যগ্রন্থ একই দিনে প্রকাশ করে ইন্ডিয়া বুক অফ রেকর্ডসে নাম তুললেন নামখানার ছাত্র

তিনি মৌসুনী কো-অপারেটিভ হাইস্কুল থেকে মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক পাশ করার পর শিবানী মন্ডল মহাবিদ্যালয় থেকে স্নাতক শিক্ষা শেষ করে রাষ্ট্রবিজ্ঞান নিয়ে রবীন্দ্রভারতী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে দূরশিক্ষার মাধ্যমে স্নাতকোত্তর করছেন। পড়াশোনার পাশাপাশি ধ্রুববিকাশ পশ্চিমবঙ্গ সরকারের বাংলা সহায়তা কেন্দ্রে কর্মরত।

পাঁচটি কাব্যগ্রন্থ একই দিনে প্রকাশ করে ইন্ডিয়া বুক অফ রেকর্ডসে নাম তুললেন নামখানার ছাত্র

ধ্রুবর বাবা আলোকবরণ মাইতি সেচ দপ্তরের আধিকারিক, মা আরতি মাইতি এসএসকে স্কুলের শিক্ষিকা ।ধ্রুবর বয়স যখন দশ, তখন থেকেই কবিতা লেখার প্রতি আগ্রহ সৃষ্টি হয় তাঁর মধ্যে। বিশেষ করে উচ্চমাধ্যমিকের পরে ‘পঞ্চাননী নন্দী মেমোরিয়াল প্রাথমিক শিক্ষক প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউট’ থেকে প্রশিক্ষণ গ্রহণের সময় এক শিক্ষক ধ্রুববিকাশের কবিতা সহপাঠী-সহপাঠিনীদের সামনে পাঠ করেন।

পাঁচটি কাব্যগ্রন্থ একই দিনে প্রকাশ করে ইন্ডিয়া বুক অফ রেকর্ডসে নাম তুললেন নামখানার ছাত্র

সেখানেই প্রত্যেকের প্রশংসার মাধ্যমে প্রথম উদ্দীপিত হন তিনি। তারপর আন্তর্জাতিক কলকাতা পুস্তকমেলা ২০১৯-এ নবীন হাতে প্রথম কাব্যগ্রন্থ প্রকাশ করেন ‘অনুপমা’। তারপর ওই ব্লকে ‘সমুদ্র জানালা কবিতা পত্র’-এর সঙ্গে যুক্ত হন। যেখানে কবিতা নিয়ে আলোচনায় হয়। তিনি নিজেও নির্ঝঞ্ঝাট সাহিত্য পত্রিকার সম্পাদনা করেন, প্রকাশিত ‘অনুপমা’ কাব্যগ্রন্থের পর ‘গোছানো পাতার জল’, ‘নদী ভর্তি কবিতার নৌকো (২০২১)’ ও ‘প্রতিটি পায়ের শব্দ’ কাব্যগ্রন্থগুলি প্রকাশ করেন তিনি।

পাঁচটি কাব্যগ্রন্থ একই দিনে প্রকাশ করে ইন্ডিয়া বুক অফ রেকর্ডসে নাম তুললেন নামখানার ছাত্র

কাব্যগ্রন্থগুলি প্রকাশ করে কবিমহলে সুনাম কুড়িয়েছেন তিনি। কবিতা লেখনীর ওপর ভিত্তি করে বেশকিছু প্রতিযোগিতায় তিনি পুরস্কৃতও হয়েছেন।বয়স এখনও পঁচিশ না পেরোলেও অনেক বাধাবিপত্তি পার করে তিনি তৈরি করলেন নতুন ইতিহাস। এর আগেও অনেকে বিভিন্ন বিষয়ের ওপর বিভিন্ন রকমের সৃজনশীলতাকে হাতিয়ার করে রেকর্ড তৈরি করেছেন।

পাঁচটি কাব্যগ্রন্থ একই দিনে প্রকাশ করে ইন্ডিয়া বুক অফ রেকর্ডসে নাম তুললেন নামখানার ছাত্র

১ জানুয়ারি প্রকাশিত পাঁচটি কাব্যগ্রন্থের মধ্যে ‘অথবা জলচক্র’ কাব্যগ্রন্থটি আধুনিক কবিতা। ‘বোতাম বিশ্বাসের মতো’ কাব্যগ্রন্থটি হাইকু জাতীয় কবিতা। ‘বান্ধবী’ মূলত সিরিজ কবিতা। ‘পাথর চাপা চিৎকার’ কাব্যগ্রন্থটি স্বাধীন গদ্য কবিতা। এবং ‘চাঁদ হাতে কুরুক্ষেত্র’ কাব্যগ্রন্থটি অণু-পরমাণু কবিতা। ধ্রুবর কথায়, বাংলা ভাষাকে উৎসর্গ করে ভিন্ন ঘরানার পাঁচটি কাব্যগ্রন্থ একই দিনে প্রকাশ করেছি।

পাঁচটি কাব্যগ্রন্থ একই দিনে প্রকাশ করে ইন্ডিয়া বুক অফ রেকর্ডসে নাম তুললেন নামখানার ছাত্র

আমার জীবনের লক্ষ্য এই সমাজের হাতে কিছু উপহার তুলে দেওয়া। আমার এই সাফল্য আমার পরিবারের পাশাপাশি ‘সমুদ্র জানালা কবিতাপত্রকে’ দিতে চাই।পাঠকমহল থেকে কবিমহলের অনেকে প্রশংসা করেছেন কবি ধ্রুববিকাশকে। তাঁর শিক্ষক থেকে পাঠকরা বলেছেন, প্রতিটি বইয়ের প্রায় কবিতাগুলো মন জয় করার মতো, ভিন্ন ভিন্ন স্বাদের। ‘সমুদ্র জানালা কবিতাপত্রের’ সম্পাদক কবি সৌগত প্রধানের কথায়, ওর ভাবনাচিন্তার সঙ্গে লেখনীর হাত অনেক মজবুত!

পাঁচটি কাব্যগ্রন্থ একই দিনে প্রকাশ করে ইন্ডিয়া বুক অফ রেকর্ডসে নাম তুললেন নামখানার ছাত্র

এই বয়সে এমন ভাবনা আমাদের সকলের মনে বিস্ময় ঘটিয়েছে। ইতিমধ্যে ইন্ডিয়া বুক অফ রেকর্ডসের শংসাপত্র বাড়িতে পৌঁছেছে। শংসাপত্র পৌঁছতেই খুশির হাওয়া বইছে পরিবারে। ধ্রুব ইন্ডিয়া বুক অফ রেকর্ডসে নাম তুলে নামখানার নাম উজ্জ্বল করেছেন। এই কৃতিত্বের জন্য গর্বিত সহপাঠী, শিক্ষক-শিক্ষিকা ও নামখানাবাসী।

Html code here! Replace this with any non empty raw html code and that's it.

Most Popular

error: Content is protected !!