Tuesday, April 16, 2024
spot_img
Homeজেলাপ্রচারে নামলেন যাদবপুরের তৃণমূল প্রার্থী সায়নী ঘোষ

প্রচারে নামলেন যাদবপুরের তৃণমূল প্রার্থী সায়নী ঘোষ

বিশ্ব সমাচার, সোনারপুর: মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উপস্থিতিতে রবিবার ব্রিগেডে ‘জনগর্জন’ সভাতে আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে পশ্চিমবাংলায় ৪২টি আসনে তৃণমূল কংগ্রেসের প্রার্থীর নাম ঘোষণা করা হয়। রবিবার রাতেই সোনারপুর উত্তর বিধানসভার কামালগাজি এলাকায় যান যাদবপুর কেন্দ্রের তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী সায়নী ঘোষ।

প্রচারে নামলেন যাদবপুরের তৃণমূল প্রার্থী সায়নী ঘোষ

দেওয়াল লিখনের পাশাপাশি তিনি এদিন জনসংযোগও করেন। উপস্থিত ছিলেন সোনারপুর উত্তর বিধানসভার বিধায়ক ফিরদৌসি বেগম এবং রাজপুর সোনারপুর পুরসভার একাধিক কাউন্সিলর এবং দলীয় কর্মী-সমর্থকরা। তিনি বলেন, ১৯৮৪ সালে ৩০ বছর আগে যুবনেত্রী হিসেবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে যাদবপুর জিতিয়েছিল। এবার আমাকে জেতান।

প্রচারে নামলেন যাদবপুরের তৃণমূল প্রার্থী সায়নী ঘোষ

আমিও যুবনেত্রী। নিরাশ করব না বলে বার্তা সায়নীর। তিনি আরও বলেন, লড়াইয়ের ময়দানে নেমেছি, আমি লড়াই করব। বিধায়ক, কাউন্সিলর, পঞ্চায়েত সদস্য, জেলা পরিষদ সদস্য, সবাই পাশে রয়েছেন। সর্বোপরি ছাত্র-যুব-মহিলা সকলের সমর্থন রয়েছে। ফলে এই লড়াইয়ে আমি জিতব।

প্রচারে নামলেন যাদবপুরের তৃণমূল প্রার্থী সায়নী ঘোষ

পাশাপাশি সোমবার দুপুর ১২টার সময় সায়নী বারুইপুর পূর্ব বিধানসভা কেন্দ্রের অন্তর্গত লীলা সিনেমা হলে তৃণমূল কংগ্রেসের কর্মীদের নিয়ে একটি সভা করেন। সেখানে উপস্থিত ছিলেন বারুইপুর বিধানসভা কেন্দ্রের তৃণমূল কংগ্রেসের বিধায়ক বিভাস সরদার, ব্লক তৃণমূল কংগ্রেস নেতা শ্যামসুন্দর চক্রবর্তী সহ বারুইপুর পূর্ব বিধানসভা কেন্দ্রের ১৫টি গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান, উপপ্রধান, বুথ সভাপতি সহ বিশিষ্টজনেরা।

প্রচারে নামলেন যাদবপুরের তৃণমূল প্রার্থী সায়নী ঘোষ

তারপর সেখান থেকে তিনি ফুলতলায় বারুইপুর পূর্ব বিধানসভা কেন্দ্রের পার্টি অফিসে যান এবং সেখানে পার্টির উচ্চ নেতাদের সঙ্গে একটি বৈঠক করেন। সেখান থেকে রামনগর এক নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েতের অন্তর্গত সীতাকুণ্ড এলাকায় যান। সেখানে দেওয়াল লিখন করে জনসংযোগও করেন। বিকেল তিনটে নাগাদ চামপাটি গ্রাম পঞ্চায়েতের অন্তর্গত চীনের মোড় থেকে চামপাটি মোড় পর্যন্ত পদযাত্রার মাধ্যমে জনসংযোগ করেন তৃণমূল কর্মীদের নিয়ে।

প্রচারে নামলেন যাদবপুরের তৃণমূল প্রার্থী সায়নী ঘোষ

সায়নী ঘোষ বলেন, যাদবপুর লোকসভাতে আমি জিতবই। এখন দেখার প্রয়োজন, গতবারের তুলনায় এবার কত লিড বেশি করব।লীলা সিনেমার এই কর্মী সমাবেশে কংগ্রেসের বিধায়ক বিভাস সরদার বলেন, তাঁর বিধানসভায় এলাকার ২৮৩টি বুথ আছে। সেই বুথে প্রত্যেকটি বুথ সভাপতি ও অঞ্চল সভাপতিকে তিনি সতর্ক করে দেন। প্রত্যেক বুথ থেকে তৃণমূল কংগ্রেসের লিড অবশ্যই চাই।

প্রচারে নামলেন যাদবপুরের তৃণমূল প্রার্থী সায়নী ঘোষ

না হলে পরে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তিনি আরও বলেন, কেন্দ্রীয় বাহিনী থাকবে। ওদের কাজ ওরা করবে। ওরা যদি মানুষকে ডিস্টার্ব করে, তাহলে গ্রামের মহিলারা প্রতিরোধ গড়ে তুলবেন। বারুইপুর পূর্ব বিধানসভা কেন্দ্র থেকে এক লক্ষ ভোটে জেতার নিদান দিয়েছেন বিভাস সরদার।

Most Popular