Sunday, June 16, 2024
spot_img
spot_img
Homeরাজ্যশাহজাহানকে হেফাজতে নিল সিবিআই

শাহজাহানকে হেফাজতে নিল সিবিআই

দিনভর নাটকের পর অবশেষে শেখ শাহজাহানকে হেফাজতে নিল সিবিআই। কলকাতা হাই কোর্টের নির্দেশে সন্দেশখালিকাণ্ডের তদন্ত এখন সিবিআইয়ের হাতে।মঙ্গলবার হাই কোর্টের প্রধান বিচারপতি টিএস শিবজ্ঞানমের বেঞ্চ নির্দেশ দিয়েছিল, শাহজাহানকেও সিবিআইয়ের হাতেই তুলে দিতে হবে। ওই নির্দেশ পাওয়ার পর পরই ভবানী ভবনে পৌঁছে যান সিবিআই আধিকারিকেরা।

শাহজাহানকে হেফাজতে নিল সিবিআই

কিন্তু প্রায় ২ ঘণ্টা অপেক্ষার পর শাহজাহানকে না-নিয়েই ফিরতে হয় তাঁদের। সূত্রের খবর, সিআইডি জানায়, হাই কোর্টের নির্দেশকে চ্যালেঞ্জ করে সুপ্রিম কোর্টে গিয়েছে রাজ্য। তাই এই মামলাটি বিচারাধীন।যদিও রাজ্যের দ্রুত শুনানির আর্জি খারিজ হয়ে যায় শীর্ষ আদালতে। বুধবারও সুপ্রিম কোর্ট জানিয়ে দেয়, প্রয়োজনে প্রধান বিচারপতির কাছে এ নিয়ে আবেদন জানাতে পারে রাজ্য। আপাতত হাই কোর্টের নির্দেশই বহাল থাকছে।

শাহজাহানকে হেফাজতে নিল সিবিআই

অন্য দিকে, রাজ্যের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার অভিযোগ করে হাই কোর্টের দ্বারস্থ হয় ইডি। বুধবার বিচারপতি হরিশ ট্যান্ডন এবং বিচারপতি হিরণ্ময় ভট্টাচার্যের ডিভিশন বেঞ্চ জানিয়ে দেয়, বিকেলেই সিবিআইয়ের হাতে তুলে দিতে হবে শাহজাহানকে। তার পর ভবানী ভবনে পৌঁছে যায় সিবিআই। তাদের সঙ্গে ছিলেন সিআরপিএফ। দীর্ঘ সময় ধরে হস্তান্তরের প্রক্রিয়া চলে।

শাহজাহানকে হেফাজতে নিল সিবিআই

আদালতের দেওয়া সময় পেরিয়ে গেলেও কেন শাহজাহানকে সিবিআইয়ের হাতে দেওয়া হল না, এ নিয়ে প্রশ্ন তোলে ইডি। রাজ্যের বিরুদ্ধে আবারও আদালত অবমাননার অভিযোগ নিয়ে হাইকোর্টের দ্বারস্থ হওয়ার তোড়জোড় শুরু করে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা। তার পর সন্ধ্যা নাগাদ শাহজাহানকে নিয়ে এসএসকেএমে যায় সিআইডি। অন্য় এজেন্সির হাতে তুলে দেওয়ার আগে এই ধরনের মেডিক্য়াল পরীক্ষা করা হয়।

শাহজাহানকে হেফাজতে নিল সিবিআই

বেশ কিছু ক্ষণ ধরে সেখানে স্বাস্থ্যপরীক্ষা হয় তাঁর। তার পর ৬টার পর আবার শাহজাহানকে নিয়ে ভবানী ভবনে যায় রাজ্য পুলিশ। তারপর সন্ধ্যা ৬টা ৪০ মিনিট নাগাদ শাহজাহানকে হাতে পায় সিবিআই।শাহজাহানকে নিয়ে ভবানী ভবন থেকে বেরোন কেন্দ্রীয় তদন্তকারীরা। পাশাপাশি, সংশ্লিষ্ট মামলার কাগজপত্র সিবিআইয়ের হাতে তুলে দেয় সিআইডি।

শাহজাহানকে হেফাজতে নিল সিবিআই

এদিন তাকে জোকা ইএসআই হাসপাতালে প্রথম নিয়ে গিয়ে তারপর নিজাম প্যালেসে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। শাহজাহানের বিরুদ্ধে মোট তিনটি এফআইআর করা হয়েছে। রাজ্য পুলিশ তাঁর বিরুদ্ধে খুনের চেষ্টার মামলা করলেও, সেই ধারা দেয়নি সিবিআই। যা দেখে বিস্মিত ইডি আধিকারিকরা।

Html code here! Replace this with any non empty raw html code and that's it.

Most Popular

error: Content is protected !!