Monday, February 26, 2024
Homeজেলাক্যানিং স্টেশনে টিকিট পরীক্ষকের 'দাদাগিরি'!

ক্যানিং স্টেশনে টিকিট পরীক্ষকের ‘দাদাগিরি’!

বান্টি মুখার্জি, ক্যানিং: সুন্দরবনের প্রবেশদ্বার নামে খ্যাত শিয়ালদহ দক্ষিণ শাখার ক্যানিং স্টেশন। এই স্টেশন থেকে প্রতিদিনই বহু সাধারণ ট্রেনযাত্রী ও দেশ-বিদেশের পর্যটকরা যাতায়াত করেন। ট্রেনের সাধারণ যাত্রীদের অভিযোগ, ক্যানিং স্টেশনের কর্তব্যরত কয়েকজন টিকিট পরীক্ষক সাধারণ নিত্যযাত্রীদের বিব্রত করে এবং অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করে। এবার সেই ঘটনা প্রকাশ্যে আসতেই লজ্জায় মুখ ঢাকছেন সাধারণ নিত্য ট্রেনযাত্রীরা।

ক্যানিং স্টেশনে টিকিট পরীক্ষকের 'দাদাগিরি'!

বৃহস্পতিবার ক্যানিং স্টেশনের যাত্রীরা দেখলেন, ক্যানিং স্টেশনের এক কর্তব্যরত টিকিট সিনিয়র পরীক্ষকের অভব্য আচরণ। যা সাধারণ মানুষ কল্পনাতেও ভাবতে পারেননি। এদিন স্টেশন চত্বরে এক প্রতিবন্ধী যাত্রীকে হেনস্থা করার অভিযোগ ওঠে ক্যানিং স্টেশনের এক টিকিট পরীক্ষকের বিরুদ্ধে। অভিযোগ, তিনি সনাতন সিং নামে এক প্রতিবন্ধী ট্রেনযাত্রীর সঙ্গে দুর্ব্যবহার করে, গালিগালাজ করে।

ক্যানিং স্টেশনে টিকিট পরীক্ষকের 'দাদাগিরি'!

স্টেশন চত্বরে ফেলে মারার জন্য উদ্যত হন। পাল্টা গালিগালাজ করেন ওই ট্রেন যাত্রী। ক্ষমতার দাম্ভিকতা দেখাতে এরপর ওই ট্রেনযাত্রীকে ধরে আরপিএফের হাতে তুলে দেন টিকিট পরীক্ষক। পরে আরপিএফের তরফে ওই ট্রেনযাত্রীকে স্টেশন চত্বর ছেড়ে চলে যেতে বলা হয়।

ক্যানিং স্টেশনে টিকিট পরীক্ষকের 'দাদাগিরি'!

ওই ট্রেনযাত্রী যখন স্টেশনের বাইরে যাওয়ার চেষ্টা করেন, ঠিক সেই মুহূর্তে কর্তব্যরত ওই টিকিট পরীক্ষক দাদাগিরি দেখাতে আসরে নেমে পড়েন। রীতিমতো কর্তব্যরত আরপিএফের মহিলা হেড কনস্টেবলকে ধাক্কা দিয়ে ট্রেন যাত্রীকে ঘাড় ধরে মারার জন্য উদ্যত হন। ওই যাত্রী স্টেশন চত্বরে পড়ে যান ওই যাত্রী।

ক্যানিং স্টেশনে টিকিট পরীক্ষকের 'দাদাগিরি'!

বড়সড় দুর্ঘটনা ঘটে যেতে পারত। এই ঘটনায় সাধারণ নিত্যযাত্রীরা ক্ষোভ প্রকাশ করেন। ওই টিকিট পরীক্ষক ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, ‘ওই ট্রেন যাত্রী মদ্যপ অবস্থায় ছিল। অন্যান্য যাত্রীদের গালিগালাজ করছিল। আমাকেও গালিগালাজ করেছে। তাকে ধাক্কা দিয়ে বাইরে নিয়ে গিয়েছিলাম।’

ক্যানিং স্টেশনে টিকিট পরীক্ষকের 'দাদাগিরি'!

প্রশ্ন উঠছে, ওই যাত্রী যে মদ্যপ ছিল, সেটা ডাক্তারি রিপোর্ট ছাড়া সিনিয়র টিকিট পরীক্ষক কীভাবে তাঁকে মদ্যপ বলেন? পাশাপাশি স্টেশনের যাত্রী সুরক্ষার জন্য যেখানে রেলপুলিশ রয়েছে, সেখানে কীভাবে তিনি নিজের হাতে আইন তুলে নেন?
এমন ঘটনার পর রেলপুলিশ স্বতঃস্ফূর্ত ভাবে কোনও অভিযোগ দায়ের করে তদন্ত করেনষ কি না, সেদিকে তাকিয়ে নিত্য ট্রেনযাত্রীরা।

Most Popular

error: Content is protected !!