Tuesday, February 27, 2024
Homeজেলামেয়েকে উত্যক্ত করার প্রতিবাদ করলে, বাবাকে শাবল দিয়ে মারধরের অভিযোগ নামখানায়

মেয়েকে উত্যক্ত করার প্রতিবাদ করলে, বাবাকে শাবল দিয়ে মারধরের অভিযোগ নামখানায়

রবীন্দ্রনাথ মন্ডল, নামখানা : মাধ্যমিক পরীক্ষার্থী মেয়েকে উত্যক্ত করার প্রতিবাদ করলে, বাবাকে শাবল দিয়ে মারধরের অভিযোগ উঠল এক প্রতিবেশী যুবক ও তার বাবা বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে নামখানা থানা এলাকায়। স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, প্রায় এক বছর ধরে এক ছাত্রীকে উত্যক্ত করতো প্রতিবেশী এক যুবক।

মেয়েকে উত্যক্ত করার প্রতিবাদ করলে, বাবাকে শাবল দিয়ে মারধরের অভিযোগ নামখানায়

এই ঘটনা নিয়ে প্রায় তিন বার গ্রামে বসাবসিও হয়েছিল। কিন্তু কোন সুরাহা হয়নি। গত সোমবার আবারও ওই ছাত্রীর বাড়িতে এসে ওই যুবক অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করতে থাকে। সেই সময় ওই ছাত্রীর বাবা প্রতিবাদ করলে, অভিযুক্ত যুবক ও তার বাবা তাঁকে শাবল দিয়ে মাথায় মারে। সঙ্গে সঙ্গে ওই ছাত্রীর বাবা মাটিতে লুটিয়ে পড়েন।

মেয়েকে উত্যক্ত করার প্রতিবাদ করলে, বাবাকে শাবল দিয়ে মারধরের অভিযোগ নামখানায়

তৎক্ষণাৎ প্রতিবেশীরা তাঁকে উদ্ধার করে প্রথমে দ্বারিকনগর প্রাথমিক স্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিয়ে যান। পরে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে কাকদ্বীপ মহকুমা হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়। বর্তমান ওই ছাত্রীর বাবা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। এ বিষয়ে ওই ছাত্রীর পরিবারের পক্ষ থেকে নামখানা থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। সেই অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিস তদন্ত শুরু করেছে।

মেয়েকে উত্যক্ত করার প্রতিবাদ করলে, বাবাকে শাবল দিয়ে মারধরের অভিযোগ নামখানায়

ছাত্রীর মা বলেন, “এই বছর তাঁর মেয়ে মাধ্যমিক পরীক্ষা দেবে। আর এক সপ্তাহ পরে রয়েছে মাধ্যমিক পরীক্ষা। আতঙ্কে মেয়ে কোচিং ও টিউশনে যেতে পারছে না। মেয়েকে এক আত্মীয়র বাড়িতে রেখে দিয়ে আসা হয়েছে।” ছাত্রীর পরিবারের অভিযোগ, অভিযুক্ত যুবক তাদের মেয়ের মুখে অ্যাসিড মেরে পুড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দিচ্ছে।

মেয়েকে উত্যক্ত করার প্রতিবাদ করলে, বাবাকে শাবল দিয়ে মারধরের অভিযোগ নামখানায়

এমনকি থানায় অভিযোগ করলে, পরিবারের সবাইকে প্রাণে মারারও হুমকি দিচ্ছে। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। পুলিস সূত্রে জানা গিয়েছে, বৃহস্পতিবারে অভিযুক্ত যুবক ও তার বাবাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ওই মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীর সাথে পুলিস গিয়ে দেখা করেছে এবং তাকে মাধ্যমিক পরীক্ষা দেওয়ার বিষয়েও আশ্বস্ত করেছে।

Most Popular

error: Content is protected !!