Wednesday, February 28, 2024
Homeরাজ্যঅ্যাডমিট জাল করে স্ত্রীর হয়ে পরীক্ষা দিতে এসে ধরা পড়লেন স্বামী

অ্যাডমিট জাল করে স্ত্রীর হয়ে পরীক্ষা দিতে এসে ধরা পড়লেন স্বামী

স্টাফ রিপোর্টার: স্ত্রী অসুস্থ। তাই অ্যাডমিট কার্ড জাল করে স্ত্রীর হয়ে পরীক্ষা দিতে এসে হাতেনাতে পাকড়াও হলেন স্বামী। ঘটনাকে ঘিরে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়ায় মালদহের চাঁচোল কলেজ।শুক্রবার ছিল গৌড়বঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের বিএ জেনারেলের পঞ্চম সেমেস্টারের বাংলা পরীক্ষা।

অ্যাডমিট জাল করে স্ত্রীর হয়ে পরীক্ষা দিতে এসে ধরা পড়লেন স্বামী

মানিকচক কলেজের এক পরীক্ষার্থী পুষ্পা চৌধুরীর পরীক্ষার আসন পড়েছিল মালদহের চাঁচল কলেজে। কিন্তু পরীক্ষাকেন্দ্রে পুষ্পা চৌধুরীর পরিবর্তে পরীক্ষা দিতে আসেন সিদ্ধার্থশঙ্কর দাস। পরীক্ষা শুরুর কিছু ক্ষণের মধ্যেই তা নজরে আসে পরীক্ষাকেন্দ্রের দায়িত্বে থাকা পরীক্ষকের। অ্যাডমিট কার্ড পরীক্ষা করতেই জারিজুড়ি ফাঁস হয়ে যায়। দেখা যায় অ্যাডমিট কার্ডটি নকল।

অ্যাডমিট জাল করে স্ত্রীর হয়ে পরীক্ষা দিতে এসে ধরা পড়লেন স্বামী

হাজিরা খাতায় পুষ্পা চৌধুরীর ছবি এবং নাম রয়েছে। কিন্তু অ্যাডমিট কার্ডে পুষ্পার ছবির পরিবর্তে রয়েছে সিদ্ধার্থশঙ্করের ছবি। বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ভুয়ো পরীক্ষার্থীকে হাতেনাতে ধরে ফেলেন। সিদ্ধার্থশঙ্কর সমস্ত অভিযোগ স্বীকার করে দাবি করেন, পুষ্পা তাঁরই বোন।

অ্যাডমিট জাল করে স্ত্রীর হয়ে পরীক্ষা দিতে এসে ধরা পড়লেন স্বামী

তিনি খুবই অসুস্থ। তাই বোনের হয়ে তিনি পরীক্ষা দিতে এসেছেন।যদিও কলেজ কর্তৃপক্ষ থানায় লিখিত অভিযোগ করেন। ওই ভুয়ো পরীক্ষার্থীকে পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়।পুলিশ সূত্রে খবর, মানিকচক কলেজের তৃতীয় বর্ষের ছাত্রী পুষ্পা অসুস্থতার কারণে পরীক্ষা দিতে পারছেন না।

অ্যাডমিট জাল করে স্ত্রীর হয়ে পরীক্ষা দিতে এসে ধরা পড়লেন স্বামী

তাই স্ত্রীকে পরীক্ষায় পাশ করাতে জালিয়াতির পথে হেঁটেছেন স্বামী। বোন নয়, আসলে স্বামী সিদ্ধার্থশঙ্কর স্ত্রীর হয়ে পরীক্ষা দিতে গিয়েছিলেন চাঁচল কলেজে।

Most Popular

error: Content is protected !!