Monday, April 15, 2024
spot_img
Homeরাজ্যস্ত্রীকে খুনের পর দেহ ৬ টুকরো করে খালে ভাসানোর অভিযোগ স্বামীর বিরুদ্ধে

স্ত্রীকে খুনের পর দেহ ৬ টুকরো করে খালে ভাসানোর অভিযোগ স্বামীর বিরুদ্ধে

স্টাফ রিপোর্টার: নিজের স্ত্রীকে হত্যা করার অভিযোগ স্বামীর বিরুদ্ধে। মর্মান্তিক এই ঘটনাটি ঘটেছে উত্তর ২৪ পরগনার মধ্যমগ্রামে।মৃতের নাম সায়রা বানু। তাঁর স্বামী নুরউদ্দিন মণ্ডল(৫৫)।পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, দিনকয়েক আগে নুরউদ্দিন মধ্যমগ্রাম থানায় স্ত্রী সায়রা বানুর নামে একটি মিসিং ডায়েরি করেন।

স্ত্রীকে খুনের পর দেহ ৬ টুকরো করে খালে ভাসানোর অভিযোগ স্বামীর বিরুদ্ধে

অভিযোগের ভিত্তিতে শুরু হয় তদন্ত। তদন্তের স্বার্থেই বেশ কয়েকবার নুরউদ্দিনকে জেরা করে পুলিশ। সেই সময় বক্তব্যে অসংগতি পান তদন্তকারীরা। এরই মধ্যে বিষ খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন নুরউদ্দিন। স্থানীয়রা তাঁকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে। খবর পেয়ে পুলিশ যায় ঘটনাস্থলে।

স্ত্রীকে খুনের পর দেহ ৬ টুকরো করে খালে ভাসানোর অভিযোগ স্বামীর বিরুদ্ধে

তারপর পুলিশ জানতে পারে পাশের খালেই কুপিয়ে ফেলে দিয়েছে নুরউদ্দিন নিজেই। পুলিশ সূত্রে খবর, স্ত্রীকে খুনের কথা স্বীকার করে নেয় নুরউদ্দিন।জানা গিয়েছে, স্ত্রীকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে খুন করে অভিযুক্ত। তার পর প্রমাণ লোপাটে দেহ ৬ টুকরো করে। ফেলে দেয় খালে। যাতে পুলিশের সন্দেহ না হয় সেই কারণে নিজেই নিখোঁজ ডায়েরি করে।

স্ত্রীকে খুনের পর দেহ ৬ টুকরো করে খালে ভাসানোর অভিযোগ স্বামীর বিরুদ্ধে

কিন্তু তাতেও শেষ রক্ষা হল না। ইতিমধ্যেই অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। দেহাংশ উদ্ধার হয়েছে বলেও খবর।মৃতার মেয়ের দাবি, “বাবাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে সেখানে খুনের কথা বলে। আমাকে জানিয়েছে মাকে হত্যা করে একটি গাড়িতে দেহের টুকরোগুলো ফেলে দিয়েছি। আমার মাসিকে আবার উল্টো কথা বলেছে।

স্ত্রীকে খুনের পর দেহ ৬ টুকরো করে খালে ভাসানোর অভিযোগ স্বামীর বিরুদ্ধে

সেখানে বলেছে গলা কেটে খালে দেহ ফেলে দিয়েছে। আমার ছোট দাদাকেও আবার অন্য কথা বলেছে। এক একজনকে একেক রকম কথা বলেছে আমার বাবা। বলছে আমি হাট থেকে ছুরি কিনে নিয়ে এসেছিলাম। এটা সত্যি। আমি নিজে দেখেছিলাম কয়েকদিন আগে ছুরি কিনে নিয়ে এসেছিলাম।

স্ত্রীকে খুনের পর দেহ ৬ টুকরো করে খালে ভাসানোর অভিযোগ স্বামীর বিরুদ্ধে

যদিও ওই ছুরিটা এখনও পাওয়া যায়নি। যেদিন খুন হয়েছে সেদিন আমাদের বাড়ির এখানে পিকনিক চলছিল। ফলে পিকনিকে যারা ছিল, তাদের উপরও আমার সন্দেহ রয়েছে।” কিন্তু কী কারণে এই নৃশংসতা? তা জানার চেষ্টা করছে পুলিশ।

Most Popular