Monday, February 26, 2024
Homeরাজ্য'প্রকাশ্যে কোনও কথা বললে ছেঁটে ফেলা হবে', বার্তা মমতার

‘প্রকাশ্যে কোনও কথা বললে ছেঁটে ফেলা হবে’, বার্তা মমতার

দলের ভিতরের কথা বাইরে বলা যাবে না। দলীয় নির্দেশ অমান্য করলে তাঁকে বহিষ্কারও করা হতে পারে। গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব রুখতে দলীয় নেতৃত্বকে ফের কড়া বার্তা দিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।পশ্চিম মেদিনীপুরের জেলা নেতৃত্বদের নিয়ে বুধবার কালীঘাটে বৈঠকে বসেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বৈঠকে ছিলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়, দেব।

'প্রকাশ্যে কোনও কথা বললে ছেঁটে ফেলা হবে', বার্তা মমতার

তৃণমূল সূত্রে খবর, বৈঠকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সাফ জানিয়েছেন,“সবাই মুখপাত্রর মতো আচরণ করছে। যে যার ইচ্ছে বলে দিচ্ছে। সোশাল মিডিয়ায় পোস্ট করছে। এটা বন্ধ করতে হবে। দলে এবার থেকে চালু সেন্সরশিপ। দলের ভিতরের কথা বাইরে বলা যাবে না। কোনও ব্যক্তিগত আক্রমণ সোশাল মিডিয়ায় করা যাবে না। দলে সবার গণতন্ত্র আছে। স্বাধীনতা আছে।

'প্রকাশ্যে কোনও কথা বললে ছেঁটে ফেলা হবে', বার্তা মমতার

দলের অভ্যন্তরে কিছু সমস্যা হতেই পারে। সেটা বলতে হবে দলেই। সংবাদমাধ্যমে তা বলা যায় না।” দলনেত্রীর আরও সংযোজন, “কোনও ঝগড়াঝাঁটি বরদাস্ত করা হবে না। দল যাঁকে বলতে বলবে একমাত্র তিনিই সংবাদমাধ্যমের সামনে মুখ খুলবেন। বাইরে মুখ খোলা যাবে না।দলীয় নির্দেশ অমান্য করে কেউ কোনও কথা বললে তাঁকে বহিষ্কারও করা হতে পারে।” লোকসভা নির্বাচনের আগে ফের সংঘবদ্ধ লড়াইয়ের বার্তাও দেন মমতা।

'প্রকাশ্যে কোনও কথা বললে ছেঁটে ফেলা হবে', বার্তা মমতার

বলেন, “সবাইকে একসঙ্গে কাজ করতে হবে।”সূত্রের খবর, এদিনের বৈঠকে তৃণমূলের রাজ্য সভাপতি সুব্রত বক্সী বার্তা দেন, নিজেদের স্বার্থকে ফেলে রেখে নির্বাচনের কাজে অংশ নিতে হবে। দল কর্মীদের অনেক কিছু করে দিয়েছে, দলের প্রতি সকলের যে দায়বদ্ধতা রয়েছে, সে বার্তাও দেন বক্সী।পাশাপাশি জেলার নেতাদের জানিয়েছেন, , আর ঘরে বসে রাজনীতি নয়। এখনই মাঠে নেমে পড়ুন। বিজেপির বিরুদ্ধে লড়াই জোরদার করতে হবে।

'প্রকাশ্যে কোনও কথা বললে ছেঁটে ফেলা হবে', বার্তা মমতার

ওরা আমাদের চোর বলছে। এজেন্সি দিয়ে ম্যালাইন করতে চাইছে। অথচ ওরা সব ডাকাত। ওরা চোর বললে, ওদের ডাকাত বলুন। ‘তৃণমূল নবজোয়ার’ কর্মসূচির অভিজ্ঞতাও তুলে ধরেন তিনি। পরামর্শ দেন, ১০০ দিনের কাজের টাকা নিয়ে কেন্দ্রীয় বঞ্চনা সহ নানা ইস্যুতে আন্দোলন আরও জোরদার করতে হবে।

'প্রকাশ্যে কোনও কথা বললে ছেঁটে ফেলা হবে', বার্তা মমতার

জেলা নেতাদের অভিষেক বলেন, “পঞ্চায়েতের আগে যে ভাবে আন্দোলনে ঝাঁঝ বাড়িয়েছিলেন। সেটা কম মনে হচ্ছে। বাড়ান।” বৈঠক শেষে অভিষেক স্পষ্ট করে দিয়েছেন, নেত্রী যা নির্দেশ দেবেন, সেটাকে শিরোধার্য মেনেই আগামী দিনে কাজ করবেন তিনি।এদিকে তৃণমূল সূত্রের খবর, দলের মুখপাত্র বদল করা হবে লোকসভার আগেই।

'প্রকাশ্যে কোনও কথা বললে ছেঁটে ফেলা হবে', বার্তা মমতার

এখন মোট ২১ জন মুখপাত্র রয়েছেন। লোকসভার আগে একাধিক নতুন মুখ আনা হতে পারে। মুখপাত্র বাছাইয়ের কাজটি করবেন সুব্রত বক্সী এবং অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। ত্রের খবর, ৫-৬টি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ জেলার বৈঠক হবে কালীঘাটে। সেই বৈঠকগুলিতে থাকবেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বাকি জেলাগুলি নিয়ে বৈঠক করবেন রাজ্যস্তরের শীর্ষ নেতারা।

Most Popular

error: Content is protected !!