Friday, March 1, 2024
Homeরাজ্যঅভিষেকের অভিমান ভাঙতে আসরে নামলেন মুখ্যমন্ত্রী, আলোচনা করে মেটালেন যাবতীয় বিতর্ক

অভিষেকের অভিমান ভাঙতে আসরে নামলেন মুখ্যমন্ত্রী, আলোচনা করে মেটালেন যাবতীয় বিতর্ক

অশোক বন্দ্যোপাধ্যায়, কলকাতা: সংগঠনের পুরো দায়িত্ব যাঁর হাতে ন্যস্ত, সেই অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের নিজেকে
সরিয়ে নিয়ে যাওয়ার ঘোষণা নিয়ে বির্তক থামাতে আসরে নামতে হল দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে। দলের একটি
সূত্রে জানা গিয়েছে, নেত্রী বুঝেছেন এই সমস্যা এবং অভিষেকের অভিমান তিনি ছাড়া দলের অন্য কেউ মেটাতে পারবে
না।

অভিষেকের অভিমান ভাঙতে আসরে নামলেন মুখ্যমন্ত্রী, আলোচনা করে মেটালেন যাবতীয় বিতর্ক

ফলে যাবতীয় বিতর্কের রাশ টানতে তিনি এদিন কার্যত নাক গলালেন। আসলে এ নিয়ে গত কয়েকদিন ধরে চর্চা ও
তার পরিপ্রেক্ষিতে দলের নবীন ও প্রবীণ নেতাদের ভিতর বাকযুদ্ধ একটা জটিল পরিস্থিতি তৈরি করে দিয়েছে।
প্রকাশ্যে এই যুদ্ধ লোকসভা ভোটের মুখে আমজনতা ভালোভাবে গ্রহণ করছে না তা দলনেত্রী বুঝতে পেরেছেন।

অভিষেকের অভিমান ভাঙতে আসরে নামলেন মুখ্যমন্ত্রী, আলোচনা করে মেটালেন যাবতীয় বিতর্ক

কিন্তু
তিনি বিষয়টি পর্যবেক্ষণের পর যখন বুঝলেন, তাঁর হস্তক্ষেপ জরুরি। না হলে নবীন ও প্রবীণদের লড়াই আরও বেড়ে
যেতে পারে। তাতে দলের জোটবদ্ধ চেহারা নষ্ট হয়ে যাবে। ভোটে তার খারাপ প্রভাব পড়তে পারে। ফলে সোমবার দলের
প্রতিষ্ঠা দিবসের দিন অভিষেককে কালীঘাটে নিজের বাড়িতে ডাকলেন দলের সুপ্রীমো।

অভিষেকের অভিমান ভাঙতে আসরে নামলেন মুখ্যমন্ত্রী, আলোচনা করে মেটালেন যাবতীয় বিতর্ক

ঘটনাচক্রে একই সময়ে
সেখানে হাজির হলেন মন্ত্রী ও কলকাতার মেয়র ফিরহাদ হাকিম। নবীন ও প্রবীণ এর এই হাজির হওয়াটা অনেকের
কাছে তাৎপর্যপূর্ণ বলে মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল। কারণ, এই সময়ের যাবতীয় বিতর্ক চলছে অভিষেক শিবির ও
ফিরহাদ হাকিম শিবিরের ভিতর।

অভিষেকের অভিমান ভাঙতে আসরে নামলেন মুখ্যমন্ত্রী, আলোচনা করে মেটালেন যাবতীয় বিতর্ক

একটি বিশেষ সূত্রে জানা গিয়েছে, এদিনের দীর্ঘ সময় বৈঠকে দু’জনকে সামনে রেখে
নেত্রী উদ্ভুত সমস্যা নিয়ে আলোচনা করেন। পরস্পরকে সামনে বসিয়ে এ নিয়ে আর কেউ কোনও মন্তব্য যাতে না
করে সে ব্যাপারে বুঝিয়ে শান্ত হওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন।

অভিষেকের অভিমান ভাঙতে আসরে নামলেন মুখ্যমন্ত্রী, আলোচনা করে মেটালেন যাবতীয় বিতর্ক

তিনি বলেছেন, নবীন ও প্রবীণ বলে বিভাজন করার সময়
এখন নয়। দলের সকলকে একজোট হয়ে বিজেপির বিরুদ্ধে লড়তে হবে। এটা সকলকে মনে রাখতে হবে। না হলে
বিরোধীরা এর সুযোগ নিয়ে ফায়দা তুলতে পারে। জানা গিয়েছে, মুখ্যমন্ত্রীর কথা মন দিয়ে শুনেছেন অভিষেক ও
ফিরহাদ। মুখ্যমন্ত্রীর কথা মেনেই চলবেন বলে কথাও দিয়েছেন।

অভিষেকের অভিমান ভাঙতে আসরে নামলেন মুখ্যমন্ত্রী, আলোচনা করে মেটালেন যাবতীয় বিতর্ক

যদিও এ নিয়ে কালীঘাট থেকে সেভাবে কোনও
মন্তব্য করা হয়নি। বলা হয়েছে, এদিন প্রতিষ্ঠা দিবস ছিল। তাই দু’জনে সম্মান ও শুভেচ্ছা জানাতে কালীঘাটে
মুখ্যমন্ত্রীর কাছে এসেছিলেন। তাঁর শারিরীক সুস্থতা কামনা করেছেন। খোঁজ নিয়েছেন তিনি কেমন আছেন। এর বাইরে
কোনও আলোচনা হয়নি।

Most Popular

error: Content is protected !!