Wednesday, February 28, 2024
Homeজেলাছবি এঁকে রাজ্যে প্রথম স্থান দখল করল নামখানার ছাত্রী সেঁজুতি

ছবি এঁকে রাজ্যে প্রথম স্থান দখল করল নামখানার ছাত্রী সেঁজুতি

রবীন্দ্রনাথ মন্ডল, নামখানা : “স্বাস্থ্য বিষয়ক পোস্টার” এই বিষয়ের উপর ছবি এঁকে রাজ্যে প্রথম পুরস্কার পেল নামখানার ছাত্রী সেঁজুতি প্রধান। সেঁজুতি দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলার নামখানা ব্লকের নামখানা গ্রামের বাসিন্দা। বর্তমানে সে দেবনগর মোক্ষদাদিন্দা উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের বিজ্ঞান বিভাগের দ্বাদশ শ্রেণীর ছাত্রী।

ছবি এঁকে রাজ্যে প্রথম স্থান দখল করল নামখানার ছাত্রী সেঁজুতি

প্রধান পরিবার সূত্রে জানা যায়, সেঁজুতির বয়স যখন তিন বছর। তখন থেকেই পড়াশোনার পাশাপাশি সে নাচ, আবৃত্তি, ছবি আঁকা ও বিভিন্ন হাতের কাজ শেখে।এমনকি সেঁজুতি এই ১৭ বছর বয়সেও নাচ, ছবি আঁকা ও আবৃত্তিতে বহু পুরস্কার পেয়েছে। ছোটোবেলা থেকেই সে পড়াশোনায় খুবই মেধাবী।

ছবি এঁকে রাজ্যে প্রথম স্থান দখল করল নামখানার ছাত্রী সেঁজুতি

পড়াশোনার পাশাপাশি ছবি আঁকা স্কুলেও সুনাম অর্জন করেছে। সেঁজুতিকে ছোটোবেলা থেকে ছবি আঁকায় উৎসাহ জুগিয়েছে তার ঠাকুমা দেবশ্রী দাস প্রধান। ভবিষ্যতে সে চিত্রশিল্পী হতে চায়। তার বাবা সৌগত প্রধান পেশায় একজন প্রাথমিক স্কুল শিক্ষক, পাশাপাশি তিনি একজন বিশিষ্ট কবি। সেঁজুতির মা সংঘমিত্রা প্রধান একজন গৃহকর্মী।

ছবি এঁকে রাজ্যে প্রথম স্থান দখল করল নামখানার ছাত্রী সেঁজুতি

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, স্টুডেন্ট হেলথ হোমের উদ্যোগে রাজ্য স্তরে সাংস্কৃতিক ও ক্রীড়া প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়েছিল। এই প্রতিযোগিতার নাম রাখা হয় “উৎসব ২০২৩”। প্রতিযোগিতায় নামখানার দেবনগর মোক্ষদাদিন্দা উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে প্রতিযোগী হিসেবে সেঁজুতির নাম পাঠানো হয়েছিল।

ছবি এঁকে রাজ্যে প্রথম স্থান দখল করল নামখানার ছাত্রী সেঁজুতি

আর সেঁজুতি প্রথম স্থান দখল করে জায়গা করে নিল রাজ্যে। এবিষয়ে সেঁজুতি জানায়, “খুব ছোটো থেকে নাচ, ছবি আঁকা ও আবৃতি শিখি। আমাকে ছবি আঁকতে উৎসাহিত জুগিয়েছেন আমার পরিবারের পাশাপাশি আমার অংকন শিক্ষক মলয় কুমার গিরি ও রবীন্দ্রনাথ দাস এবং কাকিমা মাধবী দাস।

ছবি এঁকে রাজ্যে প্রথম স্থান দখল করল নামখানার ছাত্রী সেঁজুতি

আমি বড় হয়ে একজন চিত্রশিল্পী হতে চাই।” অন্যদিকে সেঁজুতির বাবা সৌগত প্রধান বলেন, “মেয়ে এই পুরস্কারটা পাওয়ায় আমি খুবই খুশি। ও ভবিষ্যতে চিত্রশিল্পী হতে চায়। এতে আমার সম্পূর্ণ সহযোগিতা থাকবে।” অপরদিকে তার মা সংঘমিত্রা প্রধান বলেন, “মেয়ে পুরস্কার পাওয়ায় আমি গর্বিত।”

ছবি এঁকে রাজ্যে প্রথম স্থান দখল করল নামখানার ছাত্রী সেঁজুতি

তবে এবিষয়ে দেবনগর মোক্ষদা দিন্দা উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক নিরঞ্জন মাইতি জানান, সেঁজুতির জন্য গর্বিত স্কুল। আশীর্বাদ করি সেঁজুতি আরও বড় হোক। তার এই সাফল্যে নামখানার নাম উজ্জ্বল হয়েছে। সেঁজুতির এই কৃতিত্বের জন্য গর্বিত তার সহপাঠী, শিক্ষক-শিক্ষিকা, প্রতিবেশী ও নামখানাবাসী।

Most Popular

error: Content is protected !!