Wednesday, February 28, 2024
Homeজেলাপিঠেপুলি উৎসব শুরু সোনারপুরে

পিঠেপুলি উৎসব শুরু সোনারপুরে

প্রদীপকুমার সিংহ, সোনারপুর: বাংলার পৌষ মাস মানে শীতের দিনে নলেন গুড, মুড়কির মোয়া, সুস্বাদু খাবার পাওয়া যায়। সেই সঙ্গে নলেন গুড় দিয়ে বিভিন্ন রকম পিঠে হয়। তার স্বাদ আলাদা হয়। এখন পিঠেপুলি উৎসব চলছে সোনারপুর রাজপুর পুরসভা এলাকায়।

পিঠেপুলি উৎসব শুরু সোনারপুরে

বাংলার সুপ্রাচীন ঐতিহ্যকে বজায় রাখতে রসের সন্ধানে নতুনত্বের স্বাদে বিরাট পিঠেপুলি উৎসবের আয়োজন করা হল রাজপুর সোনারপুর পুরসভার ২৯ নম্বর ওয়ার্ড কমিটির উদ্যেগে। বৃহস্পতিবার গড়িয়া বরদাপ্রসাদ উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে বসেছে একাধিক স্টল।

পিঠেপুলি উৎসব শুরু সোনারপুরে

ওয়ার্ডের মা-বোনেরা পিঠেপুলি উৎসব ও প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করেন। বিভিন্ন স্বাদের সুস্বাদু পিঠে, পাটিসাপটা, পায়েস নিয়ে ওয়ার্ডের গৃহবধূরা উৎসবে অংশগ্রহণ করেছেন। সূদুর থেকে গুড় ও পাটালি নিয়েও হাজির হয় বেশকিছু মানুষ। শুধু পিঠেপুলি উৎসবই নয়, তার সঙ্গে হস্তশিল্পের নানান সরঞ্জাম নিয়েও হাজির হয়েছেন অনেকে।

পিঠেপুলি উৎসব শুরু সোনারপুরে

গোটা স্কুল প্রাঙ্গণজুড়ে স্টল বসানো হয়েছে। পুরাতন ঐতিহ্য পরম্পরাকে ধরে রাখতে দ্বিতীয় বর্ষ পিঠেপুলি উৎসবের শুভ উদ্বোধন করেন দক্ষিণ ২৪ পরগনা তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি ও সাংসদ শুভাশিস চক্রবর্তী। গোটা এলাকার স্টলগুলি ঘুরে দেখেন তিনি। পাশাপাশি তাদের বানানো জিনিসও কেনেন তিনি। মোট ৪৮টি স্টল।

পিঠেপুলি উৎসব শুরু সোনারপুরে

পিঠেপুলি উৎসবের প্রধান উপদেষ্টা ও পৃষ্ঠপোষক তথা ২৯ নম্বর ওয়ার্ডের পুরমাতা পাপিয়া মুখোপাধ্যায়। এছাড়াও মানুষের মনোরঞ্জনের জন্য ব্যবস্থা করা হয়েছে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের। পাপিয়া বলেন, এই মেলায় স্বনির্ভর গোষ্ঠীর মহিলারাই অংশগ্রহণ করেছেন। তাঁরাই বিভিন্ন পিঠেপুলির স্টল দিয়েছেন।

পিঠেপুলি উৎসব শুরু সোনারপুরে

সেই স্টল থেকে অর্থ উপার্জন করলে তাঁদের আরও বেশি করে স্বনির্ভর করা যাবে। শুভাশিস চক্রবর্তী বলেন, শীতকালে মানুষ পিঠেপুলি বেশি করে খায়। কিন্তু বাড়িতে সেরকম করে তৈরি করতে পারে না। তাই মেলা থেকে মানুষ পিঠে কিনে নিয়ে যাবে। এটা ভালো দিক।

Most Popular

error: Content is protected !!