Saturday, March 2, 2024
Homeজেলামুড়িগঙ্গা নদীতে নতুন চর, আধিকারিকদের নিয়ে ডাকা হল জরুরি বৈঠক

মুড়িগঙ্গা নদীতে নতুন চর, আধিকারিকদের নিয়ে ডাকা হল জরুরি বৈঠক

বিশ্ব সমাচার, কাকদ্বীপ : গঙ্গাসাগর মেলার প্রস্তুতিতে বড় বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছে মুড়িগঙ্গা নদীর নতুন চর। বৃহস্পতিবার জেলা শাসক ও সুন্দরবন উন্নয়ন মন্ত্রীর উপস্থিতিতে এই বিষয় নিয়ে আলোচনার জন্য জরুরী বৈঠক ডাকা হয়। বৈঠক থেকে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়, আরও বেশি সংখ্যক ড্রেজিং – এর মেশিন কাজে লাগানো হবে।

মুড়িগঙ্গা নদীতে নতুন চর, আধিকারিকদের নিয়ে ডাকা হল জরুরি বৈঠক

তবে এদিন মুড়িগঙ্গা নদীতে ড্রেজিং- এর কাজ খতিয়ে দেখলেন সেচমন্ত্রী পার্থ ভৌমিক। এমনকি এদিন রাতেই মাপা হয় মুড়িগঙ্গা নদীর জলস্তর।২০২৪ সালের জানুয়ারির প্রথম সপ্তাহেই শুরু হবে গঙ্গাসাগর মেলা। কিন্তু তার আগেই মেলার প্রস্তুতিতে বড়সড় বাধার মুখে পড়েছে দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলা প্রশাসন।

মুড়িগঙ্গা নদীতে নতুন চর, আধিকারিকদের নিয়ে ডাকা হল জরুরি বৈঠক

কাকদ্বীপের মুড়িগঙ্গা নদীতে নতুন চর তৈরী হওয়ায় ভেসেল চলাচল প্রতিদিন ব্যহত হচ্ছে। ডিসেম্বরের শেষ সপ্তাহে মুড়িগঙ্গা নদীতে পলি কাটার কাজ শেষ হওয়ার কথা ছিল।কিন্তু নতুন চরের জেরে তড়িঘড়ি বৈঠকে বসল জেলা প্রশাসন। এদিন কাকদ্বীপ মহকুমা প্রশাসনিক ভবনে জেলাশাসক সুমিত গুপ্তার পৌরহিত্যে বসল জরুরী বৈঠক।

মুড়িগঙ্গা নদীতে নতুন চর, আধিকারিকদের নিয়ে ডাকা হল জরুরি বৈঠক

উপস্থিত ছিলেন সুন্দরবন উন্নয়ন মন্ত্রী বঙ্কিম হাজরা, কাকদ্বীপের বিধায়ক মন্টুরাম পাখিরা সহ বিভিন্ন দপ্তরের আধিকারিকরা। যদিও এদিন বিকেলে আসেন সেচমন্ত্রী পার্থ ভৌমিক। তিনি দীর্ঘ সময় মুড়িগঙ্গা নদীতে জল মাপার পাশাপাশি, এলাকা পরিদর্শন করেন। পরে মন্ত্রী পার্থ ভৌমিক ও বঙ্কিম হাজরা সমস্যার কথা স্বীকার করেন।

মুড়িগঙ্গা নদীতে নতুন চর, আধিকারিকদের নিয়ে ডাকা হল জরুরি বৈঠক

তবে বৈঠকের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী অতিরিক্ত পলি কাটার যন্ত্র নদীতে বসানো হবে বলে জানান, মন্ত্রী পার্থ ভৌমিক। এদিন ভেসেলের কর্মীদের মুখেও আশঙ্কার কথা শোনা গেল। ডিসেম্বরের শেষ সপ্তাহে নদীর পলি কাটার কাজ শেষ করার কথা থাকলেও, অনিশ্চতা তৈরী হয়েছে। এদিকে মকর সংক্রান্তিতে সারা দেশ থেকে গঙ্গাসাগর মেলায় লক্ষ লক্ষ পুণ্যার্থী আসবেন।

মুড়িগঙ্গা নদীতে নতুন চর, আধিকারিকদের নিয়ে ডাকা হল জরুরি বৈঠক

পুণ্যার্থীদের যাতায়াতের প্রধান দ্বার কাকদ্বীপের মুড়িগঙ্গা নদী পেড়িয়ে কচুবেড়িয়া। আর এই মুড়িগঙ্গা নদীতে দীর্ঘদিন ধরে পলি জমার কারণে, ভাটার সময় যাত্রী পারাপারের ক্ষেত্রে ভেসেল দীর্ঘ সময় বন্ধ রাখতে হয়। এমনকি মেলা শুরুর দিন ২০ আগেও, গড়ে ৭ থেকে ৮ ঘন্টা ধরে ভেসেল বন্ধ রাখতে হয়েছে।

মুড়িগঙ্গা নদীতে নতুন চর, আধিকারিকদের নিয়ে ডাকা হল জরুরি বৈঠক

প্রতিদিন হয়রানিতে পড়তে হয়েছে সাগরের বাসিন্দা থেকে তীর্থযাত্রীদের। যদিও মন্ত্রী পার্থ ভৌমিক জানান, “নদীতে নতুন চর দেখা দিয়েছে। সেই চর কাটার জন্য উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। মেলার আগে সব ঠিকঠাক হয়ে যাবে। পুণ্যার্থীদের কোন সমস্যা হবে না।”

Most Popular

error: Content is protected !!