Tuesday, April 16, 2024
spot_img
Homeরাজ্য‘মিমিক্রি একটি শিল্প, প্রধানমন্ত্রীও করেছেন’, বিতর্কের মুখে দাবি কল্যাণের

‘মিমিক্রি একটি শিল্প, প্রধানমন্ত্রীও করেছেন’, বিতর্কের মুখে দাবি কল্যাণের

স্টাফ রিপোর্টার: মুখ্যমন্ত্রীর প্রতিনিধি দলে নাম থাকা সত্ত্বেও বাদ গেলেন কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়। বুধবার (২০ ডিসেম্বর) বাংলার বকেয়া বরাদ্দ নিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে বৈঠক করেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে যোগ দেন তৃণমূল সাংসদদের এক প্রতিনিধি দল।

‘মিমিক্রি একটি শিল্প, প্রধানমন্ত্রীও করেছেন’, বিতর্কের মুখে দাবি কল্যাণের

এই তালিকায় প্রথমে নাম ছিল কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়ও। কিন্তু, শেষ পর্যন্ত বৈঠকে দেখা যায়নি তাঁকে। রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের মতে, উপরাষ্ট্রপতি জগদীপ ধনখড়কে ভেঙানোর অভিযোগে এখন তুমুল বিতর্কের মুখে পড়েছেন শ্রীরামপুরের সাংসদ। সম্ভবত সেই কারণেই বিতর্ক এড়াতে, তাঁকে প্রধানমন্ত্রীর বৈঠক থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে।

‘মিমিক্রি একটি শিল্প, প্রধানমন্ত্রীও করেছেন’, বিতর্কের মুখে দাবি কল্যাণের

তবে, প্রধানমন্ত্রী সঙ্গে বৈঠকের পর মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও বিষয়টিকে ‘ক্যাজুয়ালি’ নিতে বলেছেন।কল্যাণ নিজেও বলেছেন, “কাউকে আঘাত করার উদ্দেশ্য আমার ছিল না। মিমিক্রি একটা শিল্প। ২০১৪ থেকে ২০১৯-এর মধ্যে লোকসভার মধ্যে প্রধানমন্ত্রীই অনেকবার এটা করেছন। তবে আমার প্রশ্ন হল, উনি (জগদীপ ধনখড়) কি সত্যিই রাজ্যসভার অন্দরে এমনই আচরণ করেন?

‘মিমিক্রি একটি শিল্প, প্রধানমন্ত্রীও করেছেন’, বিতর্কের মুখে দাবি কল্যাণের

না-হলে আমার মিমিক্রি করা নিয়ে এত বিতর্ক হচ্ছে কেন?” মোদী-মমতা বৈঠক থেকে বাদ পড়া প্রসঙ্গে কল্যাণ বলেছেন, “কাকলীদিও ছিলেন দলে। উনিও যাননি। আজ সকালে দিদি ফোন করেছিলেন। বললেন, অনেকে হয়ে গিয়েছে, তাই না যেতে।”

Most Popular