Friday, April 19, 2024
spot_img
Homeরাজ্যনকল জাতি শংসাপত্র দিলে কড়া ব্যবস্থা, রাজ্যকে নির্দেশ হাইকোর্টের

নকল জাতি শংসাপত্র দিলে কড়া ব্যবস্থা, রাজ্যকে নির্দেশ হাইকোর্টের

স্টাফ রিপোর্টার : বেআইনি ভাবে সরকারি সুযোগ সুবিধা পেতে জাল জাতিগত শংসাপত্র দেওয়া হলে তার দায় বর্তাবে সংশ্লিষ্ট মহকুমাশাসকের উপরে। মঙ্গলবার এই মর্মে রাজ্য সরকারকে হুঁশিয়ারি দিলেন হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি। সম্প্রতি আসানসোল সদরে মহকুমা শাসকের বিরুদ্ধে ১৭টি জাল জাতিগত শংসাপত্র দেওয়ার অভিযোগ ওঠে।

নকল জাতি শংসাপত্র দিলে কড়া ব্যবস্থা, রাজ্যকে নির্দেশ হাইকোর্টের

এই বিরুদ্ধে কলকাতা হাইকোর্টে মামলা দায়ের হয়। সেই মামলাতেই মঙ্গলবার প্রধান বিচারপতি পর্যবেক্ষণ,’এই মামলা হিমশৈলের চূড়ামাত্র। এ নিয়ে রাজ্যকে আরও তৎপর হাওয়া উচিত ছিল।’ বিচারপতির বার্তা, ভুয়ো শংসাপত্র দিলে জেলাশাসকের বিরুদ্ধে শৃঙ্খলাভঙ্গ এবং ফৌজদারি অপরাধের ধারা প্রয়োগ করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

নকল জাতি শংসাপত্র দিলে কড়া ব্যবস্থা, রাজ্যকে নির্দেশ হাইকোর্টের

এ নিয়ে প্রধান বিচারপতির স্পষ্ট নির্দেশ, ‘জাল শংসাপত্র দেওয়া হচ্ছে কি না সেদিকে নজর রাখবেন জেলাশাসক। যদি ধরা পড়ে তবে উপযুক্ত তদন্ত করতে হবে। একটি পচা আপেল থাকলেও তাকে খুঁজে বের করুন। যেভাবে সার্টিফিকেট বাতিল করা হচ্ছে তাতে বোঝা যাচ্ছে অভিযোগের সত্যতা আছে। রাজ্য এভাবে বসে থাকতে পারে না।

নকল জাতি শংসাপত্র দিলে কড়া ব্যবস্থা, রাজ্যকে নির্দেশ হাইকোর্টের

একটা ভিজিলেন্স বসানো উচিত। অনগ্রসর শ্রেণি দফতরের সচিব নোটিশ দিয়ে সমস্ত জেলাকে জানাবেন কাদের সার্টিফিকেট হয়েছে। আদালতে জানাতে হবে। যদি কোনও অফিসার জাল সার্টিফিকেট ইস্যু করেন সেক্ষেত্রে তাঁদের দায়িত্ব নিতে হবে।’ প্রধান বিচারপতির কথায়, ‘জাতিগত শংসাপত্র দেওয়া হলে তার মাধ্যমে একাধিক সুযোগ সুবিধা পাওয়া যায়।

নকল জাতি শংসাপত্র দিলে কড়া ব্যবস্থা, রাজ্যকে নির্দেশ হাইকোর্টের

রাজ্যকেই সেই সুবিধা দিতে হয়। এটা মাথায় রাখা প্রয়োজন। যাঁরা এই প্রকল্পের আসল সুবিধাভোগী, তাঁরা সুবিধা না পেয়ে তাঁদের অধিকার অন্যরা পেয়ে যান। রাজ্যকে তাই এখনই তৎপর হতে হবে।’ প্রসঙ্গত দু’দিন আগেই এ ব্যাপারে হুঁশিয়ার করেছিলেন স্বয়ং রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

নকল জাতি শংসাপত্র দিলে কড়া ব্যবস্থা, রাজ্যকে নির্দেশ হাইকোর্টের

আলিপুরদুয়ারের একটি সভা থেকে মমতা বলেছিলেন, ‘‘নকল জাতি শংসাপত্র দেওয়া হচ্ছে। আদিবাসীদের নামে অনেকে জাল সার্টিফিকেট হয়েছে। আমরা রিভিউ করে দেখেছি। এর মধ্যে অনেক বাতিল হয়েছে।’’

নকল জাতি শংসাপত্র দিলে কড়া ব্যবস্থা, রাজ্যকে নির্দেশ হাইকোর্টের

পরেও এমন জাল শংসাপত্রের খবর পেলে এবং তার উপযুক্ত প্রমাণ দেখাতে না পারলে সেই জাল শংসাপত্র বাতিল করা হবে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন মমতা। মুখ্যমন্ত্রীর ওই হুঁশিয়ারির ২৪ ঘণ্টা কাটতে না কাটতেই মঙ্গলবার হাই কোর্টও একই কথা বলল।

Most Popular