Friday, May 24, 2024
spot_img
spot_img
HomeUncategorizedগোলাপি শহর ও মরু রাজ্য রাজস্থানে আসন্ন বিধানসভা ভোটের ভবিষ্যৎ কোন পথে-এক

গোলাপি শহর ও মরু রাজ্য রাজস্থানে আসন্ন বিধানসভা ভোটের ভবিষ্যৎ কোন পথে-এক

অশোক বন্দ্যোপাধ্যায় ঃ কর্ণাটক বিধানসভা ভোটে চেষ্টা করেও বিজেপি জয় ধরে রাখতে পারল না। কংগ্রেস সেখানকার শাসন ক্ষমতা কেড়ে নিল। আগামীতে রাজস্থান, মধ্যপ্রদেশ ও ছত্রিশগড়, তেলেঙ্গানা ও মিজোরামে বিধানসভা ভোট হবে। যদিও এখনও বেশ কয়েকমাস দেরি রয়েছে। কিন্তু তা এই চলতি বছরে হবে। স্বাভাবিকভাবে পদ্ম শিবির এই পাঁচটি বিধানসভা ক্ষেত্রতে নিজের ক্ষমতা ধরে রাখতে কি কি করা যায়, সে ব্যাপারে চিন্তা-ভাবনা শুরু করেছে। কংগ্রেসও বসে নেই। কর্ণাটক জয়ের পর হতাশায় ডুবে যাওয়া কংগ্রেস নতুনভাবে এখন টগবগ করে ফুটছে। বিজেপির সঙ্গে সমানতালে টক্কর দেওয়ার জন্য তলে তলে গুটি সাজানোর জন্য ময়দানে নেমে পড়েছে। প্রসঙ্গত ওই ৫ টি বিধানসভার ভিতর এখন রাজস্থান ও ছত্রিশগড় কংগ্রেসের হাতে রয়েছে। মধ্যপ্রদেশ বিজেপির হাতে। তেলেঙ্গানাতে ভারত রাস্ট্রসমিতি তেলেঙ্গানা পার্টি ক্ষমতায়। মিজোরামে এখন মিজো ন্যাশনাল ফ্রন্ট ক্ষমতায়। এই প্রেক্ষাপটে বিজেপি জোর দিয়েছে যে কোনও প্রকারে পাঁচটির ভিতর অধিকাংশতে তাদের দলকে ক্ষমতার কেন্দ্রবিন্দুতে প্রতিষ্ঠা করা। তাতে কোথাও আঞ্চলিক দলের সঙ্গে জোট বাধতে হলেও তারা পিছপা হবে না। এমনটাই পদ্ম শিবিরের নেতৃত্বের মতামত। তবে এখন তাদের লক্ষ্য হল রাজস্থানকে কংগ্রেসের হাত থেকে কেড়ে নেওয়া। আসলে এই গোলাপি শহর ও মরু রাজ্যের রাজনৈতিক বৈশিষ্ট্য হল একটানা কোনও দলকে ক্ষমতায় রাখতে চায় না। পরিবর্তন হল ভোটারদের মূল লক্ষ্য। যদিও ১৯৫২ সালে থেকে ১৯৭৭ সাল পর্যন্ত রাণা সংগ্রাম সিং ,উদয় সিং ও প্রতাপ সিং এর এই রাজ্য কংগ্রসের শাসনের উপর আস্থা রেখেছিল। সেই কারণে ৫২, ৫৭, ৬২, ৭২ টানা চারবার কংগ্রেসের প্রতিপক্ষ হিসেবে কেউ উঠে আসতে পারেনি। সেই সময় আঞ্চলিক দল হিসেবে আর আর পি এবং বি জে এস ভোটে প্রার্থী দিলেও ভোট পেলেও জয়ের জায়গাতে যেতে পারেনি। ১৯৭৭ সালে বিজেপি-র উত্থান হয়। জনসঙ্ঘ ভেঙে এবং হিন্দুত্ববাদী বিভিন্ন সংগঠন এক ছাতার তলায় যুক্ত হয়ে কংগ্রসের একচেটিয়া দখলদারি ভাঙতে বিজেপি প্রতিপক্ষ হিসেবে সেবার বিধানসভা ভোটে প্রার্থী দেয়। যদিও এটা খুব সহজ ছিল না। কারণ, সে সময় শাসন ক্ষমতায় কংগ্রেস। কিন্তু ওই দলের স্বেচছাচারিতার বিরুদ্ধে পদ্ম ময়দানে নামল। মোট ২০০ আসনের ভিতর বিজেপি একাই পেয়ে গেল ১৫১ টি আসন। সংখ্যাগরিষ্ঠতার থেকে ৫০ টি আসন বেশি। কং সেখানে ৪১ টি আসনে এসে থমকে দাঁড়াল। বড় বড় নেতাদের হার হল। একেবারে বিপর্যস্থ অবস্থা ওই দলের। রাজস্থান জুড়ে পদ্ম শিবিরের আবির দিয়ে অকাল হোলি খেলা চলছে। রাজস্থানে সেই প্রথম বিজেপির মুখ্যমন্ত্রী হলেন ভৈরব সিং শেখাওয়াত। অনেক স্বপ্ন ও অনেক আশা নিয়ে অত্যাচারি কং এর হাত থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য ভোটররা পদ্মকে ঢেলে ভোট দিয়েছেন।
কিন্তু তারপর– (চলবে)

Most Popular

error: Content is protected !!