Friday, June 14, 2024
spot_img
spot_img
Homeরাজ্য'আমি ফাঁসির মঞ্চে জীবন দেব': অভিষেক

‘আমি ফাঁসির মঞ্চে জীবন দেব’: অভিষেক

স্টাফ রিপোর্টার:  কুন্তল ঘোষের চিঠি কাণ্ডে তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে তলব করল সিবিআই।তদন্তকারী সংস্থা সূত্রে খবর, কাল সকাল ১১টার মধ্যে কলকাতার নিজাম প্যালেসে তলব করা হয়েছে।এদিকে বাঁকুড়ায় নবজোয়ার যাত্রা থেকে সিবিআই নোটিসের কথা নিজেই সাংবাদিকদের জানিয়েছেন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক৷

'আমি ফাঁসির মঞ্চে জীবন দেব': অভিষেক

টুইটে তিনি জানিয়েছেন, “সিবিআইয়ের নোটিস পেয়েছি। আগামিকাল (আজ) হাজিরার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। একদিনের আগাম নোটিস না দিলেও আমি অবশ্যই হাজিরা দেব। তদন্তে পূর্ণ সহযোগিতা করব। বাঁকুড়ার যে এলাকায় কর্মসূচি স্থগিত করা হচ্ছে, সেখান থেকেই আগামী ২২ এপ্রিল ‘তৃণমূলে নবজোয়ার’ কর্মসূচি শুরু হবে। আরও উদ্যম নিয়ে আমি বাংলার মানুষের সেবায় নিজেকে নিয়োজিত করব।”

'আমি ফাঁসির মঞ্চে জীবন দেব': অভিষেক

এদিন বাঁকুড়া ছাড়ার আগে সোনামুখীর জনসভায় সিবিআইকে কার্যত চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দেন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক।অভিষেক জানান, ”আসলে নবজোয়ারের সাফল্য বিজেপির সহ্য হচ্ছে না। জেনে রাখুন, আমি আপনাদের কাছেই শুধু মাথা নত করব। আর কারও কাছে নয়। অন্য কোনও মামলায় না পেরে আমাকে এখন এসএসসি কেলেঙ্কারিতে জড়াতে চাইছে। সিবিআইয়ের ক্ষমতা থাকলে আমাকে গ্রেপ্তার করুক।”

'আমি ফাঁসির মঞ্চে জীবন দেব': অভিষেক

অভিষেক আরও বলেন, ‘‘ওদের কাছে আমি মাথা নিচু করিনি। আমি মাথা নিচু করব মানুষের কাছে, বাবা-মায়ের কাছে, দলনেত্রীর কাছে। কিন্তু দিল্লির বহিরাগতদের কাছে মাথা নত করব না। এসএসসিতে যদি আমার বিরুদ্ধে কিছু পাওয়া যায় আমি ফাঁসির মঞ্চে জীবন দেব।’’ এদিকে রাতারাতি অভিষেককে হাজিরার নোটিসকে মোটেও ভাল চোখে দেখছে না তৃণমূল। সিবিআইয়ের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তোলে রাজ্যের শাসকদল।

'আমি ফাঁসির মঞ্চে জীবন দেব': অভিষেক

কেন সারদাকর্তা সুদীপ্ত সেনের অভিযোগের পরেও শুভেন্দু অধিকারীকে কেন এখনও গ্রেপ্তার করা হল না, সেই প্রশ্ন করেন তৃণমূল মুখপাত্র কুণাল ঘোষ। সিবিআই তলব নিয়ে শুরু রাজনৈতিক চাপানউতোর। বিরোধী দলনেতা তথা বিজেপি বিধায়ক শুভেন্দু অধিকারীর বলেন, “ফাঁসির মঞ্চের পরিবর্তে হাজিরা দিন অভিষেক।” টুইটে শুভেন্দুকে খোঁচা দেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার।

'আমি ফাঁসির মঞ্চে জীবন দেব': অভিষেক

তিনি লেখেন, “জিজ্ঞাসাবাদের সম্মুখীন হব, ফাঁসির মঞ্চে চড়ব আবার অব্যাহতি চাইতে কোর্টেও যাব। এক মুখে এতরকম কথা। নির্দোষ হলে জিজ্ঞাসাবাদে সহযোগিতায় এত ভয় কেন? আগেই সহযোগিতা করলে ২৫ লাখের থাপ্পর হজম করে সিবিআই-এর কাছে যেতে হত না। বারে বারে ঘুঘু তুমি খেয়ে যাও ধান, এবার ঘুঘু তোমার বধিব পরাণ।”

Html code here! Replace this with any non empty raw html code and that's it.

Most Popular

error: Content is protected !!