Friday, May 24, 2024
spot_img
spot_img
Homeরাজ্যলটারি কেটে নয়, টাকা দিয়েই পুরস্কার কিনতেন কেষ্ট! দাবি চার্জশিটে

লটারি কেটে নয়, টাকা দিয়েই পুরস্কার কিনতেন কেষ্ট! দাবি চার্জশিটে

স্টাফ রিপোর্টার: একের পর এক লটারি কেটেছেন। পেয়েছেন কোটি কোটি টাকা। বীরভূমে তৃণমূলের সভাপতি অনুব্রত মণ্ডলের লটারি-কাহিনি নিয়ে আগেও শোরগোল পড়েছে। তবে আদালতে জমা পড়া চার্জশিটে কেন্দ্রীয় এজেন্সি দাবি করেছে, অনুব্রত এবং তাঁর কন্যা সুকন্যা আসল পুরস্কারপ্রাপকদের কাছ থেকে অনেকগুলি লটারির টিকিট কিনে নিয়েছিলেন। যে লটারিগুলিতে পুরস্কার উঠেছিল।

লটারি কেটে নয়, টাকা দিয়েই পুরস্কার কিনতেন কেষ্ট! দাবি চার্জশিটে

ইডির দাবি, তদন্তে উঠে এসেছে, বোলপুরের লটারি বিক্রয়কেন্দ্র গাঙ্গুলি লটারি এজেন্সির সঙ্গে অনুব্রত বিশ্বজ্যোতি বন্দ্যোপাধ্যায়ের মাধ্যমে বোঝাপড়া করে নিয়েছিলেন। বোঝাপড়া অনুযায়ী, তার বিক্রিত টিকিটে কেউ পুরস্কার পেলেই লটারি বিক্রয়কেন্দ্র থেকে বিশ্বজ্যোতির মাধ্যমে সেই খবর পৌঁছে যেত অনুব্রতের কাছে। তার বদলে লটারি বিক্রয়কেন্দ্রকে কিছু কমিশন দেওয়া হত।

লটারি কেটে নয়, টাকা দিয়েই পুরস্কার কিনতেন কেষ্ট! দাবি চার্জশিটে

তার পর অনুব্রত তাঁরই কোনও বিশ্বস্ত ব্যক্তিকে দিয়ে পুরস্কার বিজেতার সঙ্গে যোগাযোগ করাতেন। নগদ টাকার বিনিময়ে পুরস্কার ওঠা টিকিট কিনে নেওয়া হত। চার্জশিটে ইডির দাবি, এ ভাবেই অনুব্রত ও তাঁর কন্যা সুকন্যা ৫০ লক্ষ টাকার দু’টি এবং ১ কোটি টাকা পুরস্কারমূল্যের একটি লটারির টিকিট কিনে নিয়েছিলেন।

লটারি কেটে নয়, টাকা দিয়েই পুরস্কার কিনতেন কেষ্ট! দাবি চার্জশিটে

এ ছাড়াও ২০১৯-২০ এবং ২০২০-২১ সালের মধ্যে সুকন্যা ৭৫ লক্ষ ৫৩ হাজার এবং ৫৬ লক্ষ টাকা লটারিতে জিতেছেন বলে ইডির দাবি।ইডির চার্জশিটে দাবি করা হয়েছে যে, অনুব্রত জেরায় জানিয়েছেন, তিনি এবং কন্যা সুকন্যা মোট ১০-১২ বার লটারি জিতেছেন। তার মধ্যে ২০১৮ সাল থেকে ৫-৬ বার লটারিতে পুরস্কার জিতেছে তাঁর পরিবার।

Most Popular

error: Content is protected !!