Tuesday, May 28, 2024
spot_img
spot_img
Homeজেলানামখানায় দু'টি সেতুর কাজের জন্য কাল থেকে যান নিয়ন্ত্রণ

নামখানায় দু’টি সেতুর কাজের জন্য কাল থেকে যান নিয়ন্ত্রণ

অমিত মণ্ডল, নামখানা: নামখানা ব্লকে দু’টি সেতুর কাজের জন্য বৃহস্পতিবার থেকে ১১৭ নম্বর জাতীয় সড়কের নামখানা ব্লকের একাংশ রাস্তা বন্ধ থাকবে। ১১৭ নম্বর জাতীয় সড়কের নামখানা ব্লকের লালপুল এবং ফ্রেজারগঞ্জের ১০ মাইলে দু’টি সেতু নতুন করে তৈরির কাজ চলছে বহুদিন ধরে। এবার দু’টি সেতুর উপর নতুন করে গার্ডার বসবে। তার জন্য কিছুদিন কয়েক ঘণ্টা ধরে ব্রিজের উপর দিয়ে যান চলাচল বন্ধ রাখা হবে।

নামখানায় দু'টি সেতুর কাজের জন্য কাল থেকে যান নিয়ন্ত্রণ

ক্রেন দিয়ে কাজ চলার কারণে বিপদ ঘটতে পারে। তাই বিপদ এড়াতে এই পদক্ষেপ নিল জাতীয় সড়ক কর্তৃপক্ষ। বৃহস্পতিবার থেকে নামখানা ব্লকের লালপোল ব্রিজে নতুন করে গার্ডার বসার কারণে এই ব্রিজ বন্ধ রাখা হল। বন্ধ থাকবে ১ মে পর্যন্ত। অন্যদিকে, ২ মে থেকে ৭ মে পর্যন্ত ফ্রেজারগঞ্জের ১০ মাইলে সেতুর কাজ চলার জন্য যান চলাচল বন্ধ থাকবে।

নামখানায় দু'টি সেতুর কাজের জন্য কাল থেকে যান নিয়ন্ত্রণ

তবে সেতুর উপর দিয়ে সারাক্ষণ যান চলাচল বন্ধ থাকবে না। জাতীয় সড়ক কর্তৃপক্ষ এবং প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে, সকাল সাড়ে ছ’টা থেকে বেলা ১০টা পর্যন্ত এবং বিকেল সাড়ে তিনটে থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত যান চলাচল বন্ধ থাকবে। তবে ছোট গাড়ি, অ্যাম্বুলেন্স ইত্যাদি যানবাহনের যাতায়াতের জন্য বিকল্প রাস্তাও বের করেছে পুলিশের ট্রাফিক বিভাগ।

নামখানায় দু'টি সেতুর কাজের জন্য কাল থেকে যান নিয়ন্ত্রণ

যেমন লালপুলের কাছে টেকার বাজার হয়ে কাঠপুল এবং দেবনগর দিয়ে জাতীয় সড়কে যাওয়া যাবে। অন্যদিকে, দশ মাইলের ঘোষ খাল দিয়ে আট মাইলের মূল রাস্তায় ওঠা যাবে। বাসগুলি এই সময়ে নির্দিষ্ট একটি স্থান পর্যন্ত যেতে পারবে বলে জাতীয় সড়ক কর্তৃপক্ষ এবং প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে।

নামখানায় দু'টি সেতুর কাজের জন্য কাল থেকে যান নিয়ন্ত্রণ

যেহেতু এই জাতীয় সড়কের ওপর দিয়ে যান চলাচলের পাশাপাশি বকখালি পর্যটন কেন্দ্রে বহু পর্যটক তাঁদের ছোট, বড় গাড়ি নিয়ে বকখালিতে বেড়াতে আসেন। সাময়িক কয়েক দিনের জন্য ব্রিজের কাজ চলার কারণে যান চলাচল বন্ধ থাকায় কিছুটা সমস্যা হবে বলে মনে করছে প্রশাসন।

নামখানায় দু'টি সেতুর কাজের জন্য কাল থেকে যান নিয়ন্ত্রণ

আর সেই কারণেই দশ মাইল ব্রিজের কাছে এবং লালপুল ব্রিজের কাছে কড়া নজরদারিতে ট্রাফিক পুলিশ মোতায়েন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে প্রশাসন।

Most Popular

error: Content is protected !!