Saturday, June 15, 2024
spot_img
spot_img
Homeকলকাতাহাসপাতাল তৈরিতে ট্যাক্সিচালকের লড়াই, ডাক পেলেন প্রধানমন্ত্রীর মন কী বাতে

হাসপাতাল তৈরিতে ট্যাক্সিচালকের লড়াই, ডাক পেলেন প্রধানমন্ত্রীর মন কী বাতে

স্টাফ রিপোর্টার: পেশায় তিনি ট্যাক্সি চালক।নাম মহম্মদ সহিদুল লস্কর(৫১)।তিনি জীবনের সব সঞ্চয়, স্ত্রীর গয়না, যাত্রীদের কাছ থেকে দান, সাধারণ মানুষের দান নিয়ে হাসপাতাল তৈরি করছেন বারুইপুরে।বারুইপুরের পুনরিতে মারুফা মেমোরিয়াল হাসপাতাল। ২০১৮ সালে ৫৫ বেডের এই হাসপাতালটি তৈরি হয়েছিল। সইদুলের বোনের নাম মারুফা। কম বয়সে মৃত্যু হয়েছিল মারুফার। কার্যত চিকিৎসার অভাবে মৃত্যু হয় ওই বোনের।

হাসপাতাল তৈরিতে ট্যাক্সিচালকের লড়াই, ডাক পেলেন প্রধানমন্ত্রীর মন কী বাতে

এরপর মারুফার স্মৃতিতে তৈরি হয় এই হাসপাতাল।আউটডোরে ১০জন চিকিৎসক রোগী দেখেন। এখানে ৫০ টাকা করে ভিজিট। কিন্তু ওষুধ একেবারে বিনামূল্যে। ক্রাউড ফান্ডিং প্লাটফর্মের মাধ্যমে এই হাসপাতালের জন্য় টাকা তোলা হচ্ছে। সব মিলিয়ে প্রায় ৩২ লাখ টাকার প্রয়োজন।এবার সেই সহিদুলকে মন কী বাতের অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ জানালেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

হাসপাতাল তৈরিতে ট্যাক্সিচালকের লড়াই, ডাক পেলেন প্রধানমন্ত্রীর মন কী বাতে

মন কী বাতের ১০০ তম এপিসোডে তিনি উপস্থিত থাকবেন।বাংলা থেকে একমাত্র মহম্মদ সহিদুলকেই আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। আগামী সপ্তাহে তিনি দিল্লি উড়ে যাবেন। চার দিনের প্রোগ্রাম। তিনি রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করবেন। সইদুল সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, প্রধানমন্ত্রীর টক শোতে আমাকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। এটা আমার কাছে গর্বের।

হাসপাতাল তৈরিতে ট্যাক্সিচালকের লড়াই, ডাক পেলেন প্রধানমন্ত্রীর মন কী বাতে

মঙ্গলবার স্ত্রীকে নিয়ে দিল্লির উদ্দেশ্য়ে রওনা হব। আমি প্রধানমন্ত্রীর কাছে ফান্ডের জন্য় আবেদন করব যাতে আরও বেশি মানুষ এখানে চিকিৎসা পান। সেই সঙ্গেই একটি চিঠি তিনি সঙ্গে করে নিয়ে যাচ্ছেন। যেখানে গোটা দেশের রাজনৈতিক অস্থিরতার কথা উল্লেখ করা রয়েছে। তিনি গোটা দেশের জন্য শান্তি চান।

Html code here! Replace this with any non empty raw html code and that's it.

Most Popular

error: Content is protected !!