Sunday, June 16, 2024
spot_img
spot_img
Homeরাজ্যমিড-ডে মিলে ৬ মাসে ১০০ কোটির দুর্নীতি! দাবি কেন্দ্রের, মানতে চাইছে না...

মিড-ডে মিলে ৬ মাসে ১০০ কোটির দুর্নীতি! দাবি কেন্দ্রের, মানতে চাইছে না রাজ্য

স্টাফ রিপোর্টার : রাজ্যের বিরুদ্ধে মিড ডে মিল প্রকল্পে ১০০ কোটিরও বেশি টাকার গরমিলের অভিযোগ আনলেন কেন্দ্রীয় কমিটি৷ এমনই এক রিপোর্ট পেশ করেছে মিড-ডে মিল নিয়ে তদন্তের জন্য রাজ্য ঘুরে যাওয়া কেন্দ্রীয় শিক্ষা মন্ত্রকের দল। ওই রিপোর্টে দাবি করা হয়েছে, রাজ্য সরকার ১৬ কোটি মিড-ডে মিলের ভুয়ো হিসাব পেশ করেছে। এর ফলে, ২০২২ সালের এপ্রিল থেকে সেপ্টেম্বর মাসের মধ্যে ১০০ কোটি টাকার দুর্নীতি হয়েছে।

মিড-ডে মিলে ৬ মাসে ১০০ কোটির দুর্নীতি! দাবি কেন্দ্রের, মানতে চাইছে না রাজ্য

রিপোর্টে বলা হয়েছে, উল্লিখিত সময়ের হিসাবে রাজ্য হিসাব চাইলে ১৬ কোটি অতিরিক্ত মিড-ডে মিল দেখিয়েছে। শুধু তাই নয়, নির্ধারিত পরিমাণের চেয়ে ৭০ শতাংশ কম খাবার পড়ুয়াদের সরবরাহ করা হয়েছে বলেও অভিযোগ।প্রধানমন্ত্রী পোষণ প্রকল্পের দুর্নীতির অভিযোগ নিয়ে কেন্দ্রীয় শিক্ষা মন্ত্রকের তরফে সম্প্রতি একটি প্যানেল তৈরি করা হয়। বিষয়টি খতিয়ে দেখে শিক্ষা মন্ত্রকের জয়েন্ট রিভিউ প্যানেল একটি রিপোর্ট তৈরি করে। সম্প্রতি সেই রিপোর্ট জমা পড়েছে কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে। তাতেই এমন চাঞ্চল্যকর দুর্নীতির অভিযোগ তোলা হয়েছে।

মিড-ডে মিলে ৬ মাসে ১০০ কোটির দুর্নীতি! দাবি কেন্দ্রের, মানতে চাইছে না রাজ্য

বলা হয়েছে, ২০২২ সালের প্রথম দুই অর্থবর্ষে রাজ্যের তরফে ১৪০ কোটি ২৫ লক্ষ মিড-ডে মিলের রিপোর্ট পেশ করা হয়। কিন্তু স্থানীয় প্রশাসনের রিপোর্টে ১২৪ কোটি ২২ লক্ষ মিড-ডে মিলের উল্লেখ রয়েছে। এই ফারাকের মধ্যেই দুর্নীতি রয়েছে বলে দাবি।বিষয়টি সামনে আসতেই আসরে নেমেছে বিজেপি। বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী টুইট করে লেখেন, ‘‘আগেই বলেছিলাম! শিক্ষা মন্ত্রকের জয়েন্ট রিভিউ রিপোর্টে ১৬ কোটি মিড-ডে মিল বাবদ ১০০ কোটির দুর্নীতির অভিযোগ।

মিড-ডে মিলে ৬ মাসে ১০০ কোটির দুর্নীতি! দাবি কেন্দ্রের, মানতে চাইছে না রাজ্য

২০২২ সালের এপ্রিল থেকে সেপ্টেম্বর, ছয় মাসে দুর্নীতি হয়েছে।’’ এটিকে রাজ্য সরকারের সবচেয়ে বড় দুর্নীতি বলে উল্লেখ করেছেন শুভেন্দু।চুপ নেই তৃণমূলও। দলের সাংসদ শান্তনু সেন কেন্দ্রের বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে প্রতিহিংসার রাজনীতির অভিযোগ তোলেন।শান্তনু বলেন, ‘‘ এই ধরনের প্রকল্পগুলি কেন্দ্র-রাজ্য সমন্বয়ে চলে। দুই পক্ষের যোগদান থাকে। এই জয়েন্ট রিভিউ মিশনে রাজ্য-কেন্দ্র দুই পক্ষের প্রতিনিধি থাকার কথা।

মিড-ডে মিলে ৬ মাসে ১০০ কোটির দুর্নীতি! দাবি কেন্দ্রের, মানতে চাইছে না রাজ্য

কিন্তু রাজ্যকে না জানিয়ে একতরফা ভাবে এই প্রকল্প করা হয়েছে। রাজ্যের প্রতিনিধির সই নেই রিপোর্টে। এ নিয়ে অভিযোগ জানিয়েছেন তিনি। বাংলার প্রতি প্রতিহিংসার আচরণ কতটা মারাত্মক, আরও এক বার তা প্রকাশিত হল এই রিপোর্টের মাধ্যমে।’’

Html code here! Replace this with any non empty raw html code and that's it.

Most Popular

error: Content is protected !!