Tuesday, April 16, 2024
spot_img
Homeজেলাক্যানিংয়ে গৃহস্থের বাড়িতে বৃদ্ধার সোনার হার চুরি, আতঙ্কিত এলাকার বাসিন্দারা

ক্যানিংয়ে গৃহস্থের বাড়িতে বৃদ্ধার সোনার হার চুরি, আতঙ্কিত এলাকার বাসিন্দারা

বান্টি মুখার্জি, ক্যানিং: সোনার হার চুরির ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়েল মঙ্গলবার রাতে ক্যানিং থানার অন্তর্গত মাতলা ১ পঞ্চায়েতের সঞ্জয় পল্লি এলাকায়। এ বিষয়ে ক্যানিং থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। তদন্ত শুরু করেছে ক্যানিং থানার পুলিশ।স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, সঞ্জয় পল্লির বাসিন্দা রাজা সিনহার পরিবারে রয়েছে বছর আশি বয়সের বৃদ্ধা মা প্রতিমা সিনহা, স্ত্রী বর্ণালী ও পুত্র। বৃদ্ধা মা পৃথক একটি ঘরে থাকেন।অভিযোগ, মঙ্গলবার গভীর রাতে ঘরের ছাদ থেকে চোরেরা বাড়ির মধ্যে ঢোকে। বৃদ্ধার ঘরের আলমারি খুলে তছনছ করে। ঠাকুরঘরের জিনিসপত্র ওলটপালট করে পিতল, কাঁসার জিনিসপত্র নিয়ে নেয়।

ক্যানিংয়ে গৃহস্থের বাড়িতে বৃদ্ধার সোনার হার চুরি, আতঙ্কিত এলাকার বাসিন্দারা

পরে ঘুমন্ত বৃদ্ধার গলা থেকে সোনার হার খুলে নেয় চোর। এছাড়াও একটি ব্যাগে রাখা ১৬০০ টাকা হাতিয়ে নেয় । হার খুলে নেওয়ার সময় বৃদ্ধা চিৎকার চেঁচামেচি করলেও পরিবারের অন্য সদস্যরা কেউই শুনতে পাননি। ভোর হতে ঘটনার কথা জানাজানি হয়।এলাকায় ছড়িয়ে পড়ে চাঞ্চল্য।গৃহবধূ বর্ণালী সিনহা জানিয়েছেন, ঘরে দরজা দেওয়া ছিল। পাখা চলছিল খুব জোরে। তাই কোনও শব্দই শোনা যায়নি। বৃদ্ধা শাশুড়ির গলা থেকে সোনার হার নিয়ে গিয়েছে চোর। হাতের সোনার চুড়ি খুলতে না পারায় পাশের ঘরে ঢুকে আমার ছেলের স্কুলব্যাগে রাখা ১৬০০ টাকা নিয়ে চম্পট দেয়। ঘটনার বিষয়ে অভিযোগ জানিয়েছি থানায়।

ক্যানিংয়ে গৃহস্থের বাড়িতে বৃদ্ধার সোনার হার চুরি, আতঙ্কিত এলাকার বাসিন্দারা

অন্যদিকে, বৃদ্ধা প্রতিমাদেবীর কথায়, রাতে কালো লম্বা চেহারার এক লোক আমার ঘরে ঢোকে। আলমারি তছনছ করে। আমার গলা থেকে সোনার হার কেড়ে নেয়। চিৎকার করেছিলাম। কেউ শুনতে পায়নি।
প্রতিবেশী বধূ ডলি সাহা জানিয়েছেন, চুরির ঘটনায় আমরা এলাকাবাসীরা আতঙ্কিত। মঙ্গলবার রাত ১২টা নাগাদ তিনজন অপরিচিত লোক বাইকে করে সঞ্জয় পল্লি এলাকায় ঘোরাঘুরি করছিল। পরে তারা চলে যায়। সম্ভবত এটা তাদেরই কাজ।

Most Popular