Friday, April 19, 2024
spot_img
Homeজেলাঘর থেকে শিক্ষকের ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার ঢোলাহাটে

ঘর থেকে শিক্ষকের ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার ঢোলাহাটে

সানওয়ার হোসেন, ঢোলাহাট: মানসিক অবসাদ কাটাতে না পেরে শেষমেশ ঘরের মধ্যে গলায় ওড়নার ফাঁস জড়িয়ে আত্মঘাতী হলেন এক শিক্ষক। মৃতের নাম স্নেহাশিস দাস (৪২)। তিনি ঢোলা হাইস্কুলের পদার্থবিদ্যার শিক্ষক ছিলেন। মঙ্গলবার সকালে ঘরের মধ্যে তাঁর ঝুলন্ত দেহ দেখতে পাওয়া যায়। ঢোলাহাট থানার পুলিশ দেহটিকে উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কাকদ্বীপ হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।স্কুল সূত্রে জানা গিয়েছে, পূর্ব মেদিনীপুর জেলার কন্টাই থানার দাদপুরের বাসিন্দা স্নেহাশিস দাস। ২০১০ সালের আগস্ট মাসের ২৫ তারিখ ঢোলা হাইস্কুলে শিক্ষক হিসেবে যোগ দেন।

ঘর থেকে শিক্ষকের ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার ঢোলাহাটে

ছাত্র-ছাত্রীদের কাছে বেশ জনপ্রিয় ছিলেন তিনি। পরিবারে তিন ভাইয়ের মধ্যে ছোট স্নেহাশিস। বিয়ের বেশ কিছুদিন পর থেকে পারিবারিক অশান্তির জেরে মানসিক অবসাদে ভুগছিলেন বলে জানা গিয়েছে। বছর এগারোর মেয়েকে নিয়ে আলাদা থাকতেন স্নেহাশিসের স্ত্রী। আর ঢোলা বাজার সংলগ্ন এলাকায় একটি বাড়িতে একা ভাড়া থাকতেন তিনি। দীর্ঘদিন ধরে এমন নিঃসঙ্গ জীবন কাটাতে গিয়ে মানসিক অবসাদে ভুগতে থাকেন ওই শিক্ষক।

ঘর থেকে শিক্ষকের ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার ঢোলাহাটে

শেষে অবসাদ কাটাতে না পেরে সোমবার রাতে গলায় কাপড়ের ফাঁস জড়িয়ে আত্মঘাতী হন তিনি।স্কুলের প্রধান শিক্ষক সাইফুল ইসলাম লস্কর বলেন, সকালে ফোন মারফত আমি খবর পাই। একজন প্রতিভাবান শিক্ষককে অকালে এমনভাবে চলে যেতে হবে ভাবতে পারছি না। জানতে পারলে এটা হতে দিতাম না।

Most Popular