Thursday, May 23, 2024
spot_img
spot_img
Homeজেলাপ্রাকৃতিক বিপর্যয় থেকে বাঁচানোর মক ড্রিল ডায়মন্ড হারবারে

প্রাকৃতিক বিপর্যয় থেকে বাঁচানোর মক ড্রিল ডায়মন্ড হারবারে

হেদায়তুল্লা পুরকাইত, ডায়মন্ড হারবার: আমফান, বুলবুল ও ইয়াসের মতো প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের জেরে গত কয়েকবছরে সুন্দরবন সহ জেলা জুড়ে ক্ষতির মুখে পড়েছে বহু মানুষ। এ কথা মাথায় রেখে রাজ্য সরকারের উদ্যোগে শুরু হল আপদকালীন বিপর্যয় মোকাবিলার মক ড্রিল। বৃহস্পতিবার সকালে দক্ষিণ ২৪ পরগনার ডায়মন্ড হারবার মহকুমার নুরপুর এলাকা সহ বিভিন্ন নদী উপকূলবর্তী এলাকায় মক ড্রিলে অংশগ্রহণ করেন রাজ্য সরকারের বিপর্যয় মোকাবিলা দপ্তরের কর্মীরা।

প্রাকৃতিক বিপর্যয় থেকে বাঁচানোর মক ড্রিল ডায়মন্ড হারবারে

গত কয়েকবছর ধরে মে মাসের মাঝামাঝি থেকে জুনের শুরুতে বিভিন্ন প্রকৃতিক বিপর্যয় ঘটে চলেছে। এবছর এখনও পর্যন্ত তেমন কোনও বড় প্রকৃতিক বিপর্যয় না ঘটলেও আগাম প্রস্তুতি শুরু করেছে রাজ্য সরকার। রাজ্যের বিভিন্ন জরুরি বিভাগের দপ্তরের আধিকারিক ও কর্মীদের নিয়ে শুরু হয়েছে মক ড্রিল। প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের সময় কতটা দ্রুততার সঙ্গে তার মোকাবিলা করা যায়, মূলত এই বিষয়ের উপর এদিন প্রাক প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়। প্রাথমিক পর্যায়ে একটি কৃত্রিম প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের পরিবেশ তৈরি করা হয়।

প্রাকৃতিক বিপর্যয় থেকে বাঁচানোর মক ড্রিল ডায়মন্ড হারবারে

এরপরই এই এলাকা জুড়ে সাধারণ মানুষকে সচেতন করতে মাইকিং করা শুরু হয়। তার কিছুক্ষণ পরই বিপর্যয় মোকাবিলা দপ্তরের কর্মীরা বিপদজনক এলাকাগুলি থেকে সাধারণ মানুষকে নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নিয়ে যান। তাঁদের খাবার ও পানীয় জলের ব্যবস্থা করা হয়। নদী তীরবর্তী এলাকায় শুরু হয় উদ্ধারকাজ। প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের ফলে অগ্নিসংযোগ ঘটেছে এরূপ এলাকাগুলি থেকেও সাধারণ মানুষকে নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নিয়ে আসা হয়।

প্রাকৃতিক বিপর্যয় থেকে বাঁচানোর মক ড্রিল ডায়মন্ড হারবারে

আহতদের হাসপাতালে পাঠানো হয়। মৃত ব্যক্তিদের এলাকা থেকে সরিয়ে নিয়ে গিয়ে মর্গে রাখা হয়। বিপর্যয় কেটে যাওয়ার পর বিভিন্ন দপ্তরের আধিকারিকরা এলাকা পরিদর্শন করেন। এরূপ প্রতিটি পদক্ষেপই ছিল যেন বাস্তব। এদিন রাজ্য সরকারের প্রায় ২০টি দপ্তর এই মক ড্রিলে অংশগ্রহণ করে।

Most Popular

error: Content is protected !!