Friday, April 19, 2024
spot_img
Homeকলকাতাঅ্যাডিনোতে ফের মৃত্যু ৫ শিশুর! ১০ দফা নির্দেশিকা জারি স্বাস্থ্য দফতরের

অ্যাডিনোতে ফের মৃত্যু ৫ শিশুর! ১০ দফা নির্দেশিকা জারি স্বাস্থ্য দফতরের

স্টাফ রিপোর্টার: অ্যাডিনোভাইরাসকে ঘিরে বাড়ছে আতঙ্ক।সোমবার রাত থেকে মঙ্গলবার সকাল পর্যন্তই পাঁচ শিশুর মৃত্যু হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। এর মধ্যে বিসি রায় হাসপাতালেই মারা গিয়েছে চার শিশু। কলকাতা মেডিক্য়াল কলেজের মাদার অ্যান্ড চাইল্ড হাবে ভর্তি দুই শিশু মারা গিয়েছে। হাসপাতাল সূত্রে খবর, মেডিক্যালে ভর্তি দুই শিশুরই নিউমোনিয়া ছিল। তাদের মধ্যে মধ্যমগ্রাম থেকে আসা শিশুটির বয়স ছিল মাত্র ছয় মাস।

অ্যাডিনোতে ফের মৃত্যু ৫ শিশুর! ১০ দফা নির্দেশিকা জারি স্বাস্থ্য দফতরের

ভেন্টিলেটরে রাখা হয়েছিল তাকে। অ্যাডিনোভাইরাসে সংক্রমিত হয়েছিল ছোট্ট শিশুটি। বাকি চার জনের নিউমোনিয়া ছিল। তাদের অ্য়াডিনোভাইরাসের রিপোর্ট এখনও আসেনি।হাসপাতাল সূত্রে খবর, মেডিক্যালে ভর্তি দুই শিশুরই নিউমোনিয়া ছিল। তাদের মধ্যে মধ্যমগ্রাম থেকে আসা শিশুটির বয়স ছিল মাত্র ছয় মাস। ভেন্টিলেটরে রাখা হয়েছিল তাকে। অ্যাডিনোভাইরাসে সংক্রমিত হয়েছিল ছোট্ট শিশুটি। বাকি চার জনের নিউমোনিয়া ছিল।

অ্যাডিনোতে ফের মৃত্যু ৫ শিশুর! ১০ দফা নির্দেশিকা জারি স্বাস্থ্য দফতরের

তাদের অ্য়াডিনোভাইরাসের রিপোর্ট এখনও আসেনি।মৃত শিশুদের মধ্যে একজন হাওড়ার উদয়নারায়ণপুরের বাসিন্দা। জ্বর-শ্বাসকষ্ট থাকায় তাকে ভর্তি করা হয় মেডিক্যাল কলেজে। বিসি রায় হাসপাতালের তিন শিশুই নিউমোনিয়ায় ভুগছিল। এ নিয়ে গত তিন দিনে শহর কলকাতায় প্রাণ হারাল ১০ শিশু। তা নিয়ে ইতিমধ্যেই শহরবাসীকে সতর্ক করতে শুরু করেছেন চিকিৎসকেরা।মঙ্গলবার অ্যাডিনোভাইরাস মোকাবিলায় রাজ্য স্বাস্থ্য দফতর জারি করল নয়া নির্দেশিকা।

অ্যাডিনোতে ফের মৃত্যু ৫ শিশুর! ১০ দফা নির্দেশিকা জারি স্বাস্থ্য দফতরের

নির্দেশিকায় জানানো হয়েছে, রাজ্যের সব হাসপাতাল,মেডিক্যাল কলেজ,জেলা হাসপাতালগুলিতে আউটডোর এর পাশাপশি পেডিয়াট্রিক ‘এআরআই’ ক্লিনিক জরুরি বিভাগে চালু করতে হবে।ভেন্টিলেটরের ব্যবস্থা রাখতে হবে। করোনার জন্যে কেনা ভেন্টিলেটরগুলিকে ব্যবহার করা হবে শিশুদের জন্য।নার্সিং সুপারের নিয়মিত নজরদারি রাখতে হবে।করোনার জন্য প্রস্তুত ওয়ার্ডগুলিকে জ্বর সর্দি কাশি নিয়ে আসা শিশু এবং মায়েদের জন্য ব্যাবহার করা হবে। ১৮০০৩১৩৪৪৪ এই হেল্পলাইন নম্বর ২৪ ঘণ্টা ব্যাপী চালু থাকবে।

অ্যাডিনোতে ফের মৃত্যু ৫ শিশুর! ১০ দফা নির্দেশিকা জারি স্বাস্থ্য দফতরের

মেডিকেল কলেজে আউটডোরের বাইরে ও আলাদাভাবে খুলতে হবে ক্লিনিক। জরুরী বিভাগে ২৪ ঘন্টা শিশুরোগ বিশেষজ্ঞকে থাকতে হবে। সরকারি হাসপাতালে শ্বাসকষ্ট জনিত রোগের চিকিৎসার জন্য ২৪ ঘন্টা খোলা থাকবে ক্লিনিক।মেডিক্যাল সুপারিনট্যান্ড্যান্ট অথবা অধ্যক্ষের অনুমতি ছাড়া কোনও অসুস্থ শিশুকে রেফার করা যাবে না।চিকিৎসা পেতে যাতে কোনও সমস্যা না হয়, তার জন্য সংশ্লিষ্ট পিজিটি চিকিৎসক এবং সিনিয়র রেসিডেন্ট দায়িত্বে থাকবেন।

অ্যাডিনোতে ফের মৃত্যু ৫ শিশুর! ১০ দফা নির্দেশিকা জারি স্বাস্থ্য দফতরের

আশা ও অঙ্কনওয়াড়ি কর্মীদের দিয়ে সাধারণের মধ্যে অ্যাডিনো ভাইরাস নিয়ে সচেতনতা বৃদ্ধি অভিযান চালাতে হবে।বিসি রায় শিশু হাসপাতাল, কলকতা মেডিক্যাল কলেজ, বাঁকুড়া সম্মিলনী মেডিক্যাল কলেজ, মালদহ মেডিক্যাল কলেজ-সহ মোট পাঁচটি হাসপাতালকে পেডিয়াট্রিক হাব হিসেবে কাজে লাগাতে হবে।চিকিৎসা ক্ষেত্রে যাতে কোনও সমস্যা না হয়, তার জন্য নিয়মিত প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে।রাজ্যের প্রতিটি স্তরের হাসপাতালগুলি পরিচ্ছন্ন রাখতে পর্যাপ্ত স্যানিটাইজেশনের করতে হবে।

Most Popular