Sunday, June 16, 2024
spot_img
spot_img
Homeজেলাকিশোরীকে বিয়ের টোপ দিয়ে অপহরণ করে সোনাগাছির নিষিদ্ধপল্লিতে চালান, গ্রেপ্তার ৩

কিশোরীকে বিয়ের টোপ দিয়ে অপহরণ করে সোনাগাছির নিষিদ্ধপল্লিতে চালান, গ্রেপ্তার ৩

বিশ্ব সমাচার, ঢোলাহাট: বিয়ের টোপ দিয়ে এক কিশোরীকে অপহরণ ও বিক্রির অভিযোগ তিনজনকে গ্রেপ্তার করল পুলিশ। ধৃতরা বড়সড় নারী পাচারচক্রের সঙ্গে যুক্ত বলে পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে। ধৃতদের মধ্যে একজন মহিলাও আছে। সোমবার রাতে সুন্দরবনের ঢোলাহাট থানার পুলিশ ওই তিনজনকে গ্রেফতার করেছে। ধৃতদের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩৬৩, ৩৬৫, ৩৬৬ এ, ৩৭০ এ, ৩৭৬ (২) এন ধারা ও ৬ (আই) পক্সো আইনে মামলা রুজু করে সোমবার কাকদ্বীপ মহকুমা আদালতে পেশ করা হলে তাদের চারদিনের পুলিশি হেফাজতের নির্দেশ দেন বিচারক। এদের পুলিশি হেফাজতে নিয়ে এই চক্রের সঙ্গে যুক্তদের সন্ধান পেতে চায় পুলিশ। অন্যদিকে ধৃত নাবালককে মঙ্গলবার তোলা হয়েছে জুভেনাইল কোর্টে।

কিশোরীকে বিয়ের টোপ দিয়ে অপহরণ করে সোনাগাছির নিষিদ্ধপল্লিতে চালান, গ্রেপ্তার ৩

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, গত ২৯ জানুয়ারি ঢোলাহাট থানার এক নাবালিকাকে বিয়ের টোপ দিয়ে ডেকে পাঠায় দক্ষিণ গঙ্গাধরপুরের এক নাবালক। এরপর ওই নাবালিকাকে নিয়ে কলকাতা চলে যায় সে। সেখান থেকে ওই নাবালিকাকে সোনাগাছির যৌনপল্লির এক এজেন্টের হাতে নাবালিকাকে তুলে দেওয়া হয়। রাতে সেখানে ওই নাবালিকার সঙ্গে জোরপূর্বক যৌন সম্পর্ক করে নাবালক। তারপর যৌনপল্লির ওই এজেন্ট তাকে নিয়ে যায় বালিগঞ্জে। পরে তাকে নিয়ে যাওয়া হয় আরামবাগে। সেখানে হোটেলে নিয়ে গিয়ে ওই নাবালিকার ইচ্ছার বিরুদ্ধে যৌন সম্পর্ক করে কয়েকজন যুবক। এর মধ্যে আরামবাগের হোটেল থেকে কোনওরকমে বেরিয়ে এসে বাড়িতে ফোন করে সবকিছু জানায় ওই নাবালিকা।

কিশোরীকে বিয়ের টোপ দিয়ে অপহরণ করে সোনাগাছির নিষিদ্ধপল্লিতে চালান, গ্রেপ্তার ৩

নাবালিকার পক্ষ থেকে ৩০ জানুয়ারি ঢোলাহাট থানায় লিখিত অভিযোগ জানানো হয়। তার ভিত্তিতে তদন্ত শুরু করে ৩১ জানুয়ারি ময়দান থানা এলাকার ধর্মতলা থেকে নাবালিকাকে উদ্ধার করে ঢোলাহাট থানার পুলিশ। এরপর নাবালিকার বয়ানের ভিত্তিতে তদন্ত শুরু করে পুলিশ। বিয়ের টোপ দেওয়া নাবালক প্রেমিককে প্রথম গ্রেফতার করে পুলিশ।

কিশোরীকে বিয়ের টোপ দিয়ে অপহরণ করে সোনাগাছির নিষিদ্ধপল্লিতে চালান, গ্রেপ্তার ৩

পরে সোনাগাছির এক এজেন্ট মেহেরানা ওরফে তানিয়া খাতুন ও পাথরপ্রতিমার দক্ষিণ গঙ্গাধরপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের কাঁসারির চকে নারী পাচারের আড়কাটি জাইদুল শেখকে গ্রেফতার করে পুলিশ।মঙ্গলবার ঢোলাহাট থানায় সাংবাদিক বৈঠক করে মন্দিরবাজারের এসডিপিও বিশ্বজিৎ নস্কর জানান, নাবালিকাকে পাচারের অভিযোগ তিনজনকে ধরা হয়েছে।

কিশোরীকে বিয়ের টোপ দিয়ে অপহরণ করে সোনাগাছির নিষিদ্ধপল্লিতে চালান, গ্রেপ্তার ৩

তার মধ্যে একজন নাবালক হওয়ায় তাকে জুভেনাইল কোর্টে পাঠানো হয়েছে। বাকি মহিলা ও যুবককে পুলিশি হেফাজতে নিয়ে এই চক্রের সঙ্গে যুক্তদের খোঁজ চালানো হবে। এসডিপিও আরও বলেন, নারী পাচার ও বাল্যবিবাহ নিয়ে পুলিশের তরফে বিভিন্ন এলাকায় প্রচার অভিযান চলছে। আরও বেশি করে এই সচেতনতার প্রচার অভিযান চালানোর পরিকল্পনা নিচ্ছি।

Html code here! Replace this with any non empty raw html code and that's it.

Most Popular

error: Content is protected !!