খবররাজ্য

‘লক্ষ্মীর ভান্ডার’ মেঘালয়েও, বেকারদের মাসিক টাকা,পড়ুয়াদের ল্যাপটপ, প্রতিশ্রুতির বন্যা তৃণমূলের

স্টাফ রিপোর্টার: আগামী ২৭ ফেব্রুয়ারি মেঘালয়ে ভোট। ইতিমধ্যে মেঘালয়ের ৬০টি আসনের মধ্যে ৫২টি আসনে প্রার্থী দিয়েছে।এবার মেঘালয়ে ভোটের ইস্তাহার প্রকাশ করল তৃণমূল। মঙ্গলবার শিলংয়ে গিয়ে ওই ইস্তাহার প্রকাশ করেন দলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়।

অভিষেকের সঙ্গে মঙ্গলবার ইস্তাহার প্রকাশের কর্মসূচিতে ছিলেন বিরোধী দলনেতা মুকুল সাংমা, মেঘালয় তৃণমূলের সভাপতি চালর্স, মেঘালয় তৃণমূলের সহ-সভাপতি জর্জ লিংডো, চালর্স লিংডো, তৃণমূলের রাজ্যসভার দলনেতা ডেরেক ও’ব্রায়েন ও মেঘালয় তৃণমূলের পর্যবেক্ষক তথা মন্ত্রী মানস ভুঁইয়া।ইস্তাহার প্রকাশের পর অভিষেক জানান, মেঘালয়ে ক্ষমতায় এলে পশ্চিমবঙ্গের ধাঁচে সে রাজ্যের মহিলাদের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে ১০০০ টাকা করে দেবে তৃণমূল সরকার।

প্রত্যেক মহিলা বছরে ১২ হাজার টাকা করে পাবেন।পাঁচ বছরে ৩ লক্ষ চাকরি দেওয়া হবে।২২ থেকে ৪০ বছরের যুবকদের মাসিক হাজার টাকা করে বেকার ভাতা।উচ্চমাধ্যমিক এবং কলেজ পড়ুয়াদের ১ লক্ষ ল্যাপটপ দেওয়া হবে।সব পেনশন এবং সামাজিক যোজনায় বরাদ্দ মাথাপিছু ন্যূনতম হাজার টাকা করে করা হবে।রাজ্যের ২ লক্ষ ১০ হাজার কৃষক পাবেন বার্ষিক ১০ হাজার টাকা।অভিষেক এদিন স্পষ্ট করে দিয়েছেন, তাঁদের এই ইস্তেহারে শুধু প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়নি। এগুলো তৃণমূলের সংকল্প।

আর তৃণমূল নিজেদের সংকল্প রক্ষার জন্য শেষ রক্তবিন্দু পর্যন্ত লড়াই করবে। তাঁর কথায়, ‘‘আমাদের সরকার ক্ষমতায় এলে মেঘালয়ের মানুষকে উপেক্ষা করে কোনও সিদ্ধান্ত নেবে না।’’প্রশ্ন উঠতেই পারে, এত প্রকল্পের টাকা আসবে কথা থেকে। যার জবাবও দিয়েছেন অভিষেক। তিনি জানিয়ে দিয়েছেন, মেঘালয় সরকারের হাতেই বিপুল টাকা রয়েছে। কিন্তু এই সরকার এতটাই অপদার্থ যে, নিজেদের ক্ষমতাকে ব্যবহারও করছে না।

Related Articles

Back to top button
error: Content is protected !!