খবরজেলা

নামখানায় মহিলাকে মেরে ঝুলিয়ে দেওয়ার অভিযোগ শ্বশুরবাড়ির বিরুদ্ধে, ধৃত স্বামীসহ ৩

বিশ্ব সমাচার, নামখনা: এক মহিলাকে মেরে ঝুলিয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠল শ্বশুরবাড়ি লোকজনের বিরুদ্ধে। মৃত মহিলার নাম আলপনা দেবনাথ। বয়স আনুমানিক ৫০।ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার গভীর রাতে দক্ষিণ ২৪ পরগনার নামখানা থানার পাতিবুনিয়ার দ্বিতীয়ঘেরি এলাকায়। স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, বৃহস্পতিবার ভোরে আলপনা দেবনাথকে নিজের বাড়ির গোয়ালঘরে গলায় ফাঁস লাগানো অবস্থায় দেখতে পান মৃতার বড় পুত্রবধূ।

তাঁর চিৎকার শুনে প্রতিবেশীরা এসে আলপনা দেবনাথকে গলায় ফাঁস লাগানো অবস্থায় ঝুলতে দেখেন। খবর দেওয়া হয় নামখানা থানায়। পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে আলপনা দেবনাথকে গলায় ফাঁস লাগানো অবস্থায় উদ্ধার করে দ্বারিকনগর গ্রামীণ হাসপাতালে পাঠায়। সেখানে চিকিৎসকরা তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করে। পুলিশ দেহটিকে উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কাকদ্বীপ সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে পাঠান।

মৃতার বাবার বাড়ির পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হয়েছে, তাদের মেয়েকে মেরে ঝুলিয়ে দেওয়া হয়েছে। মৃতার বাবার বাড়ির আরও অভিযোগ, বিয়ের পর থেকে প্রায়শই পণের দাবিতে মৃতাকে নির্যাতন করত তাঁর স্বামী। এ নিয়ে কয়েকবার সালিশি সভাও বসে। ঘটনার দিনও মৃতার ওপর নির্যাতন চালানো হয় এবং মৃতাকে মেরে ঝুলিয়ে দেওয়া হয়।

এমনটাই অভিযোগ করেছেন মৃতার বাবার বাড়ির লোকজন। এ বিষয়ে নামখানা থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন মৃতার বাবার বাড়ির লোকজন। পুলিশ তদন্ত শুরু করেছে। তদন্তে নেমে পুলিশ মৃতার স্বামী দিলীপ দেবনাথ সহ শ্বশুর, শাশুড়িকে গ্রেপ্তার করেছে।

Related Articles

Back to top button
error: Content is protected !!