Sunday, April 14, 2024
spot_img
Homeজেলাআবাস যোজনায় নাম নেই আদিবাসীদের, পাশে দাঁড়ালেন সমীক্ষা করা অঙ্গনওয়াড়ী কর্মী

আবাস যোজনায় নাম নেই আদিবাসীদের, পাশে দাঁড়ালেন সমীক্ষা করা অঙ্গনওয়াড়ী কর্মী

রবীন্দ্রনাথ মণ্ডল, নামখানা: আবাস যোজনার সমীক্ষার পরেও সরকারি নিয়মে মুখ্য তালিকা থেকে বাদ পড়েছে কিছু আদিবাসী পরিবার। কিন্তু ঘর পাওয়ার যোগ্য এমনই ২০টি আদিবাসী পরিবারের পাশে দাঁড়াল সমীক্ষা করা অঙ্গনওয়াড়ী কর্মী রানু গিরি। ডিসেম্বর মাসে সরকারি নির্দেশ মতো দক্ষিণ ২৪ পরগনার নামখানা ব্লকের মৌসুনীর বালিয়াড়া এলাকায় ঘরের তালিকার সমীক্ষার কাজ করেন অঙ্গনওয়াড়ী কর্মী রানু গিরি।

আবাস যোজনায় নাম নেই আদিবাসীদের, পাশে দাঁড়ালেন সমীক্ষা করা অঙ্গনওয়াড়ী কর্মী

সমীক্ষা করে দেখেন পরিবারগুলি ঘর পাওয়ার যোগ্য। কিন্তু সরকারি কিছু নিয়মে তালিকা থেকে বাদ পড়েছে নাম। এবার তাদের পাশে দাঁড়ালেন ওই সমীক্ষক অঙ্গনওয়াড়ি কর্মী রানু গিরি। গঙ্গাসাগর বকখালি উন্নয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান তথা দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলা পরিষদের অধ্যক্ষ শ্রীমন্তকুমার মালীর সহযোগিতায় ২০টি আদিবাসী পরিবারের হাতে ত্রিপল তুলে দেওয়া হয়।

আবাস যোজনায় নাম নেই আদিবাসীদের, পাশে দাঁড়ালেন সমীক্ষা করা অঙ্গনওয়াড়ী কর্মী

পাশাপাশি ঘরের ছাউনির জন্য খড় তুলে দেওয়া হয়। এ বিষয়ে অঙ্গনওয়াড়ি কর্মীর রানু গিরি বলেন, আমি বালিয়াড়া এলাকায় আদিবাসী পরিবারগুলির আবাস যোজনার সমীক্ষার কাজ করেছি। ওরা ঘর পাওয়ার যোগ্য। কিন্তু সরকারি কিছু নিয়মে তালিকা থেকে ওদের নাম বাদ পড়েছে।

আবাস যোজনায় নাম নেই আদিবাসীদের, পাশে দাঁড়ালেন সমীক্ষা করা অঙ্গনওয়াড়ী কর্মী

যাতে কিছুদিন স্বাচ্ছন্দ্যে জীবনযাপন করতে পারে, তার জন্য গঙ্গাসাগর বকখালি উন্নয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান তথা দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলা পরিষদের অধ্যক্ষ শ্রীমন্তকুমার মালীর সহযোগিতায় ২০টি পরিবারের হাতে ত্রিপল তুলে দিলাম। পাশাপাশি ছাউনির জন্য খড়ও দিলাম।

Most Popular