Saturday, June 15, 2024
spot_img
spot_img
Homeজেলানববর্ষে সুন্দরবনে জনজোয়ার

নববর্ষে সুন্দরবনে জনজোয়ার

বান্টি মুখার্জী, ক্যানিং : পরপর দু’বছর করোনার তান্ডবে সেভাবে জমেনি সুন্দরবনের পর্যটন ব্যবসা। এবার তাই সমস্ত ভয়-ভীতি উপেক্ষা করে সুন্দরবনের বিভিন্ন এলাকায় প্রকৃতিক রুপ সৌন্দর্য্য দর্শন করতে বেরিয়ে পড়েছেন ভ্রমণ পিপাসু মানুষজন। কেউবা একদিনের চড়ুইভাতিতে। কেউ আবার তিন দিনের প্যাকেজ ট্যুরে। সব মিলিয়ে সুন্দরবনের বিভিন্ন প্রান্তে এখন জনজোয়ারে পরিণত হয়েছে।

নববর্ষে সুন্দরবনে জনজোয়ার

তিল ধারনের জায়গা নেই হোটেল গুলিতেও। শুধু হোটেল নয়, সুন্দরবনে চলাচল কারি সমস্ত জলযান গুলিতেও পর্যটকদের ভিড়ে পরিপূর্ণ। পরিস্থিতির উপর নজর রাখতে তৎপর প্রশাসন। বিভিন্ন এলাকায় বাড়ানো হয়েছে পুলিশ ও প্রশাসনের নজরদারি। মূলত সুন্দরবনের ম্যানগ্রোভ জঙ্গল দর্শন আর বাঘ, হরিণ, কুমিরের মতো প্রাণীকে একেবারে জঙ্গলের মধ্যে চাক্ষুষ দেখতে প্রতি বছর শীতের সময় ভিড় জমায় বহু মানুষ।

নববর্ষে সুন্দরবনে জনজোয়ার

আট থেকে আশি সকলের কাছেই সুন্দরবন হল একটি অন্যতম বেড়ানোর পর্যটনের স্থান। ইংরাজী নতুন বছরের প্রথম দিনেই সুন্দরবনে দেশ ও বিদেশের বহু পর্যটকও ভিড় জমিয়েছিলেন । দক্ষিণ ২৪ পরগনার ঝড়খালি, কুলতলী, কেল্লা, ডাবু, পাখিরালয়, সজনেখালি, সুধন্যখালী দোবাঁকি সমস্ত জায়গা গুলিতে কোথাও বা গাড়ি নিয়ে কোথাও বা জলযানে পৌঁছে গিয়েছেন পর্যটকরা।

নববর্ষে সুন্দরবনে জনজোয়ার

বাসন্তী হাইওয়ে দিয়ে দুর্বার গতিতে ছুটে চলেছে বিরাট বিরাট সাউন্ড সিস্টেম বক্স সহ গাড়ি। বিপদজনকভাবে সেই গাড়ির মধ্যেই চলছে সাউন্ড সিস্টেমের গান, অন্যদিকে মানুষের নাচানাচি। শুধু সুন্দরবন নয় শহরতলীর আশেপাশে থাকা পিকনিক স্পট গুলিতেও এদিন ভিড় ছিল চোখে পড়ার মতো।

নববর্ষে সুন্দরবনে জনজোয়ার

বিশেষ করে ক্যানিং বারুইপুর, সোনারপুর, জীবনতলা, ঘটকপুকুর, জয়নগর এই সমস্ত এলাকা গুলিতে। বিভিন্ন বাগানবাড়ি গুলিতে আগে থেকেই বুক করে রাখা ছিল পিকনিকের জন্য।

Html code here! Replace this with any non empty raw html code and that's it.

Most Popular

error: Content is protected !!