খবরজেলা

নিরাপত্তার দাবিতে অঙ্গনওয়াড়ি কর্মীদের ধর্না নামখানায়

বিশ্ব সমাচার, নামখানা: আবাস যোজনার সমীক্ষার কাজে যুক্ত অঙ্গনওয়াড়ি কর্মীদের শারীরিক নিগ্রহ, হেনস্থা সহ কুরুচিকর মন্তব্যের প্রতিবাদে শুক্রবার দুপুর থেকে দক্ষিণ ২৪ পরগনার নামখানা বিডিও অফিসে ধর্নায় বসেন কয়েকশো অঙ্গনওয়াড়ি কর্মী। নিগ্রহ ও হেনস্থায় অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে দ্রুত আইনি ব্যবস্থা ও নিরাপত্তার দাবি তুলেছেন তাঁরা। দু’দিন আগে বিডিও শান্তনু সিংহঠাকুরকে ডেপুটেশন জমা দেন এই ব্লকের কর্মীরা।

বিডিও যথোপযুক্ত ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দিয়েছিলেন। কিন্তু তারপরেও হেনস্থা চলতে থাকায় এদিন ধর্নায় বসলেন কর্মীরা। এই ব্লকে ৩২১টি অঙ্গনওয়াড়ি কেন্দ্র চলে। প্রশাসন কর্মীদের নিরাপত্তা দিতে ব্যর্থ হলে আাগামী দিনে প্রতিটি সেন্টার বন্ধ রাখার হুঁশিয়ারি দিয়েছেন বিক্ষোভকারীরা। বিডিও অফিসের গেট বন্ধ করে বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন বিক্ষোভকারীরা। ফলে ব্যাহত হয় বিডিও অফিসের সরকারি কাজকর্ম।

এদিন বিক্ষোভের জেরে কয়েকজন সরকারি আধিকারিক বিডিও অফিসের দোতলা থেকে দড়ি দিয়ে ঝুলে নেমে বাড়ি চলে যান বলে জানান বিক্ষোভকারীরা। সেই ভিডিও ক্যামেরাবন্দি করেন বিক্ষোভকারীরা। কয়েক মিনিটের মধ্যে তা ভাইরাল হয়ে যায়। পরে অবশ্য ব্লক প্রশাসনের পক্ষ থেকে মাইকিংয়ের ব্যবস্থা করা হয়। মাইকিং করে বলা হয়, কেউ যদি অঙ্গনওয়াড়ি কর্মীদের হেনস্থা বা কটূক্তি করে, তাহলে তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এবিষয়ে নামখানার জয়েন্ট বিডিও জানান, আবাস যোজনার তালিকা নিয়ে সাধারণ মানুষের মধ্যে একটা ভ্রান্ত ধারণা তৈরি হয়েছে যে, নামগুলো অঙ্গনওয়ারি কর্মীরাই বাদ দিচ্ছেন। কিন্তু তা তো নয়। সরকারি গাইডলাইন অনুযায়ী সঠিক তদন্ত করে যোগ্যদের আবাস যোজনার ঘর দেওয়া হবে। এ বিষয়ে অঙ্গনওয়াড়ি কর্মীদের কোনও হাত নেই। বিভিন্ন জায়গা থেকে খবর আসছে, আবাস যোজনার প্রাপকদের তালিকা নিয়ে অঙ্গনওয়াড়ি কর্মীরা আক্রান্ত হচ্ছেন।

আজকের ঘটনাটাও কানে আসতেই আমরা পুলিশকে দিয়ে সামাল দিয়েছি। এ নিয়ে অঙ্গনওয়াড়ি কর্মীরা তাঁদের নিরাপত্তা চাইছেন। তবে সাধারণ মানুষের উদ্দেশে প্রত্যেকটি পঞ্চায়েত এলাকায় মাইকিং করে বার্তা দেওয়া হবে। তাছাড়া অঙ্গনওয়াড়ি কর্মীদের নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করতে বিডিও প্রত্যেক পঞ্চায়েত প্রধান ও সদস্য-সদস্যাদের নিয়ে আলোচনা করবেন, যাতে এলাকার মানুষকে সঠিক তথ্য বোঝানো হয়।

Related Articles

Back to top button
error: Content is protected !!