Sunday, July 21, 2024
spot_img
spot_img
Homeকলকাতাপরিবেশ বান্ধব হচ্ছে বিধাননগর মহকুমা হাসাপাতাল

পরিবেশ বান্ধব হচ্ছে বিধাননগর মহকুমা হাসাপাতাল

রাজকুমার সূত্রধর ঃ কয়েকমাস আগেই ডায়ালিসিস ও ক্রিটিকাল কেয়ার ইউনিট চালু হয়েছিল বিধাননগর মহকুমা হাসাপাতলে।এবার রক্ত সহ বিভিন্ন প্যাথলজিক্যাল বর্জ্য যাতে দূষণ না ছড়ায় সেজন্য বিশেষ ব্যবস্থা করল বিধাননগর মহকুমা হাসাপাতল।এই ব্যবস্থার ফলে হাসাপাতালের পরিবেশ বাঁচবে, উপকৃত হবেন চিকিৎসক ও রোগীরা।

পরিবেশ বান্ধব হচ্ছে বিধাননগর মহকুমা হাসাপাতাল

বিধাননগর হাসাপাতালের এক চিকিৎসক বলেন, সময়ের সঙ্গে স্বাস্থ্য ব্যবস্থা ও পরিবেশের উন্নতির জন্য পরিবেশ বান্ধব হাসপাতাল গড়া দরকার।সেটাই করেছে বিধাননগর।এর থেকে বহু মানুষ উপকার পাবেন।ঠিক কি ব্যবস্থা করা হয়েছে বিধাননগরে? হাসপাতাল সূত্রের খবর, বিধাননগর মহকুমা হাসাপাতালে একটি সরকারি ব্ল্যাড ব্যাঙ্ক আছে।সেখানে উদ্বৃত্ত বাতিল রক্ত প্রায়শই নষ্ট করে দিতে হয়।

পরিবেশ বান্ধব হচ্ছে বিধাননগর মহকুমা হাসাপাতাল

তাছাড়া হাসাপাতালে প্যাথলজিক্যাল বিভাগের অনেক কিছু বর্জ্য ফেলতে হয়।এই বর্জ্য গুলি হাসাপাতালের নিকাশিতে ফেলা হয়। সেখান থেকে তা সরাসরি পুরসভার নর্দমায় চলে যেত ।তাতে ওই এলাকার পরিবেশ দূষণ হত।এর থেকে কিভাবে মুক্তি পাওয়া যায় তা নিয়ে চিকিৎসকরা রাজ্য সরকারের কাছে আবেদন করেছিল।তারই ফলশ্রুতি হিসাবে বিশেষ তহবিল পেয়েছে বিধাননগর।

পরিবেশ বান্ধব হচ্ছে বিধাননগর মহকুমা হাসাপাতাল

যার থেকে তৈরি করা হয়েছে লিকুইড ওয়েস্ট ম্যানেজমেন্ট। যেখানে রিজেন্ট কেমিক্যাল যা সাধারণত ব্যবহৃত হয় প্যাথলজিক্যাল ল্যাব ও ব্লাড ব্যাঙ্কে তা নিকাশের জন্য অভিনব ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে এই হাসাপাতালে। হাসপাতাল সূত্রের খবর, হাসাপাতালের দুটি জায়াগায় এজন্য বসান হয়েছে লিকুইড ওয়েস্ট ম্যানেজমেন্টের যন্ত্রপাতি।দুটি বড় জার রাখা হয়েছে হাসপাতালের দুটি জায়গায়।জার গুলি হবে নূন্যতম বিশ লিটারের।

পরিবেশ বান্ধব হচ্ছে বিধাননগর মহকুমা হাসাপাতাল

একটি জারের ওপর আরেকটি জার রাখা থাকছে।ওপরের জারে থাকবে হাইপোক্লোরাইড সলিউশান । আর নিচের জারে থাকবে রিজেন্ট কেমিক্যাল।দুটি জারই একটি পাইপলাইনের মাধ্যমে সংযুক্ত থাকবে।মূলত এই হাইপোক্লোরাইড সলিউশান রিজেন্ট কেমিক্যালকে পরিশুদ্ধ করবে।ফলে রিজেন্ট কেমিক্যাল যখন নিকাশী নালায় মিশবে তখন আর তার মধ্যে জীবানু থাকবে না।

পরিবেশ বান্ধব হচ্ছে বিধাননগর মহকুমা হাসাপাতাল

খুব শীঘ্রই এই ব্যবস্থা চালু হবে বিধাননগরে। বিধাননগর সেক্টর ওয়ানে অবস্থিত এই হাসাপাতালে কেবল এখানকার পুরসভার বাসিন্দারা নন এর বাইরে রাজারহাট গ্রামীণ ও শহুরে এলাকা এবং দক্ষিণ দমদম পুর এলাকার কয়েক লক্ষ বাসিন্দা পরিষেবা নেন।অন্যদিকে, এই হাসাপাতালকে আধুনিক মানের করার জন্য ইতিমধ্যে রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে ২৪ ঘন্টা পরিষেবা যুক্ত ব্ল্যাড ব্যাঙ্ক, সিটি স্ক্যানের সুবিধা, ন্যায্য মূল্যের ওষুধের দোকান, ডিজিটাল এক্সরে পরিষেবার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

পরিবেশ বান্ধব হচ্ছে বিধাননগর মহকুমা হাসাপাতাল

হাসপাতালে বাড়ানো হয়েছে চিকিৎসক ও নার্সের সংখ্যাও।ফলে আগের থেকে আরও উন্নত পরিষেবা পাচ্ছেন এলাকার বাসিন্দারা।হাসাপাতালের এক চিকিৎসক বলেন, সল্টলেক এবং নিউটাউনের বেশিরভাগ রাস্তা দুর্ঘটনা প্রবণ।প্রায়শই দুর্ঘটনার শিকার হচ্ছেন পথ চারী এবং গাড়ির চালকরা।পুলিশ এবং স্থানীয়রা আশঙ্কাজনক অবস্থায় দুর্ঘটনাগ্রস্থদের হাসপাতালে নিয়ে আসছেন।কিন্তু এখানে এতদিন ক্রিটিকাল কেয়ার ইউনিট না থাকায় তাঁদের অন্যত্র স্থানান্তরিত করতে হচ্ছিল।

পরিবেশ বান্ধব হচ্ছে বিধাননগর মহকুমা হাসাপাতাল

আর সেটা করতে গিয়েই সময়ে চিকিৎসা শুরু না করায় অনেকে মারা যাচ্ছেন।তাই সিসিইউ ইউনিট একটি গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ। এটা চালু হওয়ার ফলে অনেক মূমুর্ষ রোগীর প্রাণ বেঁচে যাচ্ছে।আবার লিকুইড ওয়েস্ট ম্যানেজমেন্টের দৌলতে রোগ ছড়িয়ে পড়বে না।হাসাপাতাল ও তার বাইরের এলাকার মানুষ সুস্থ থাকতে পারবেন।

পরিবেশ বান্ধব হচ্ছে বিধাননগর মহকুমা হাসাপাতাল

বিধাননগরের বিধায়ক দমকল মন্ত্রী সুজিত বসু বলেন, ‘আগের থেকে বিধাননগর মহকুমা হাসাপাতালে চিকিৎসা পরিষেবা অনেক উন্নত হয়েছে।কিছুদিন আগে আমরা এখানে সিসিইউ চালু করেছিলাম।আগামী দিনে ডায়ালিসিস ইউনিট চালু হবে। হাসাপাতালে লিকুইড ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম পুরো মাত্রায় চালু হলে রোগের প্রকোপ কমবে।‘

Html code here! Replace this with any non empty raw html code and that's it.

Most Popular

error: Content is protected !!